ড. কামাল হোসেন

ঢাকাঃ গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেন। অবশেষে তার রাজনীতি থেকে অবসরে যাওয়ার কথা শোনা যাচ্ছে। অবশ্য বিষয়টি নিয়ে তিনি প্রকাশ্যে কিছু না বললেও তার পরিবার, বন্ধু মহল এবং রাজনৈতিক জীবনের দীর্ঘদিনের সহকর্মীদের মধ্যে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হচ্ছে।

একটি সূত্র জানিয়েছে, গণফোরামের ভাঙনে ভেঙে পড়েছেন ড. কামাল হোসেন। রাজনীতির প্রতি অনীহা চলে এসেছে তার। আর এ কারণেই শিগগির রাজনীতি থেকে অবসরে চলে যাচ্ছেন বলে গুঞ্জন উঠেছে।

এ বিষয়ে গণফোরামের বিদ্রোহী গ্রুপের নেতা অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী জানান, ড. কামাল হোসেন রাজনীতি থেকে অবসরে যেতে চান, একথা তিনি নিজেই তাকে বলেছেন। তবে তার কথা কতটা গ্রহণযোগ্য, তা এই মুহূর্তে নিশ্চিত বলা যাচ্ছে না।

  শহীদ মিনারের অন্যতম উদ্যোক্তা ভাষাসৈনিক ডা. সাঈদ আর নেই

তিনি জানান, আমরা তাকে বলেছি আপনি সম্মান নিয়ে রাজনীতিতে থাকুন। কিন্তু আপনাকে ঘিরে যে অশুভ শক্তিটি রয়েছে, তাদের দল থেকে সরিয়ে দিন। আর যদি তিনি তা না করেন, তাহলে আগামীতে আমরা তাকে শোকজ করবো।

এদিকে আগামী ২৬ ডিসেম্বর গণফোরামের জাতীয় কাউন্সিল অধিবেশনে নেতা-কর্মীদের সর্বসম্মতি নিয়ে ড. কামাল হোসেনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত হবে।

গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক ড. রেজা কিবরিয়া বলেন, উনি (ড. কামাল) অনেক আগেই বলেছেন অবসরে যাবেন। তবে এ কথায় গুরুত্ব দেয়ার কিছু নেই। যখন সময় হবে তখন ড. কামাল হোসেন সাহেবই বলবেন। আমাদের সেই সময় পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।