অধ্যাপক ডা. এবিএম আবদুল্লাহ

ডেস্ক রিপোর্ট, ঢাকা; আগামী ৫/৬ দিন করোনায় আক্রান্তের হার যদি এভাবে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ে তাহলে সরকার যে সব খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সেই সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করতে হতে পারে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত চিকিৎসক ইউজিসি অধ্যাপক ডা. এবিএম আবদুল্লাহ।

আজ বৃহস্পতিবার (২৮ মে ২০২০) একটি গণমাধ্যমকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি এ কথা জানান।

ডা. এবিএম আবদুল্লাহ বলেন, সরকার জীবন এবং জীবীকার স্বার্থেই সবকিছু খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এই সিদ্ধান্তে জনগণের সচেতনতা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

  • তিনি বলেন, এখন আপনার সচেতনতাই সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ, আপনার জীবন আপনার হাতে এবং আপনার সুস্থতাও আপনার হাতে। কাজেই আপনি সুস্থ থাকলে আপনার পরিবার সুস্থ থাকবে, পরিবার সুস্থ থাকলে সমাজ সুস্থ থাকবে।

প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত এ চিকিৎসক বলেন, ছুটি শেষ করার সিদ্ধান্তে এখন আমাদের উপর অনেক দায়িত্ব অর্পণ করা হলো। আমরা যেন স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলি, আমরা যেন সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখি এবং যে সমস্ত বিধি-নিষেধগুলো দেওয়া হয়েছে তা যেন মেনে চলি। তাহলে আমরা সুস্থ থাকতে পারবো।

  • তিনি বলেন, এখনকার মূল কথা হলো আপনার সুরক্ষা আপনার হাতে। কাজেই আমরা যদি আমাদেরকে সুরক্ষিত রাখতে পারি, তাহলে যে উদ্দেশ্যে এই খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত তা সফল হবে।
  ২৪ ঘণ্টায় ৩০ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৩৫৬

ডা. এবিএম আবদুল্লাহ আরও বলেন, আমাদের অর্থনীতির চাকা যেমন সচল রাখতে হবে, তেমনি আমাদের করোনা মোকাবেলার কাজও করতে হবে। করোনা মোকাবেলার একটি বড় দায়িত্ব এখন আমাদের হাতে। এই দায়িত্ব আমাদের অবশ্যই পালন করতে হবে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনাভাইরাস সংক্রান্ত নিয়মিত হেলথ বুলেটিনের সর্বশেষ (২৭ মে ২০২০) তথ্য অনুযায়ী, দেশে মহামারি করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) গত ২৪ ঘণ্টায় ৪৯টি ল্যাবের মধ্যে নমুনা সংগ্রহ করেছি ৯ হাজার ২৬৭টি। পূর্বেরসহ নমুনা পরীক্ষা করেছি ৯ হাজার ৩১০টি। এই সংগৃহীত নমুনা থেকে শনাক্ত রোগী পেয়েছি ২ হাজার ২৯ জন। এ পর্যন্ত করোনাভাইরাসে শনাক্ত হয়েছে ৪০ হাজার ৩২১ জন। শনাক্তের হার ২১ দশমিক ৭৯ শতাংশ।’ গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুবরণ করেছে ১৫ জন। এ পর্যন্ত মৃত্যু দাঁড়ালো ৫৫৯ জন। শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৩৯ শতাংশ। নতুন করে সুস্থ হয়েছে ৫০০ জন। মোট সুস্থ হয়েছে ৮ হাজার ৪২৫ জন। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ২০ দশমিক ৮৯ শতাংশ।’

আমাদের বাণী ডট কম/২৮  মে ২০২০/সিসিপি