বরিশালের আগৈলঝাড়া পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের উদ্যোগে কোনভাবেই বৈদ্যুতিক ফাঁদ ব্যবহার না করা এবং বৈদ্যুতিক ফাঁদ ব্যবহারের মাধ্যমে কৃষকদের ধান ক্ষেতের ইঁদুর মারার উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে মাইকিংসহ ব্যাপক প্রচারণা চালানো হয়েছে। জনসচেতনতা বৃদ্ধির ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য উপজেলা পরিষদ, থানা প্রশাসন, কৃষি কর্মকর্তা, সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানদের পত্র দিয়েছেন পল্লী বিদ্যুৎ আফিসের ডিজিএম।

বরিশাল পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর আওতাধীন আগৈলঝাড়া পল্লী বিদ্যুৎ জোনাল অফিসের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার (ডিজিএম) মো. হযরত আলী জানান, ধান ক্ষেতসহ সবজি ক্ষেতে ইঁদুরের উপদ্রব ঠেকাতে কৃষকেরা তাদের জমিতে বৈদ্যুতিক ফাঁদ ব্যবহার করে ইঁদুর মারার চেষ্টা করেন। বৈদ্যুতিক ফাঁদ মানুষ ও গৃহপালিত পশু পাখির জন্য অত্যন্ত ঝুকিপূর্ণ। অসাবধানতা ও বৈদ্যুতিক ফাঁদের কথা না জানার কারণে কৃষকসহ লোকজন ওই ফাঁদে পড়ে গুরুতর আহত হচ্ছে। এমনকি ওই ফাঁদে কৃষকদের মৃত্যুর কারণ হয়ে দাড়িয়েছে।

  মতলব-শ্রীরায়েরচর সড়ক উন্নয়নে ৫২৪ কোটি টাকার প্রকল্প অনুমোদন

সম্প্রতি ওই রকম বৈদ্যুতিক ফাঁদে পরে চেঙ্গুটিয়া গ্রামের কৃষক আব্বাস ঘরামী মারা যায়। বৈদ্যুতিক ফাঁদ ব্যবহার আইনগতভাবে অবৈধ এবং দন্ডনীয় অপরাধ। এই ফাঁদ জনগণের জানমালের ব্যাপক ক্ষতিসাধন করে আসছে। বৈদ্যুতিক ফাঁদ ব্যবহারে নিরুৎসাহিত করতে বৃহস্পতিবার উপজেলা সদরসহ বিভিন্ন এলকায় মাইকিং করে ব্যাপক প্রচারণা চালিয়েছে বিদ্যুৎ বিভাগ।

ডিজিএম আরও জানান, বৈদ্যুতিক ফাঁদ ব্যবহার না করার জন্য এবং জনসচেতনতা বাড়াতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা, অফিসার

ইনচার্জ (ওসি) সংশ্লিষ্ট চেয়ারম্যানদের গত তিন মাস আগে চিঠি প্রদান করা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে উপজেলা পরিষদের সভায়ও বিস্তারিত তুলে ধরা হয়েছে।

আমাদের বাণী-আ.আ.হ/মৃধা

[wpdevart_like_box profile_id=”https://www.facebook.com/amaderbanicom-284130558933259/” connections=”show” width=”300″ height=”550″ header=”small” cover_photo=”show” locale=”en_US”]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *