পাটক্ষেতে নিয়ে তরুণীকে ধর্ষণ

শৈলকুপা উপজেলার যাদবপুর গ্রামে এক তরুণের বিরুদ্ধে প্রতিবন্ধীকে (১৭) ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় ওই তরুণী বাড়ির পাশে নদীতে কাপড় ধুতে গেলে তাকে পাটক্ষেতে নিয়ে ধর্ষণ করেন একই গ্রামের ছাব্দুল মোল্লার ছেলে রাব্বুল মোল্লা (২১)।

শৈলকুপার ফুলহরি আলমডাঙ্গা আব্দুল হাই কলেজের ছাত্র রাব্বুল মোল্লা ঘটনার পর থেকেই পলাতক। পরে তরুণীকে শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

  জগন্নাথপুরে এক স্বাস্থ্য কর্মী করোনায় আক্রান্ত

শৈলকুপা সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার আরিফুর রহমান শুক্রবার রাত ১টার দিকে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে নির্যাতিতাকে দেখতে যান এবং তার বক্তব্য রেকর্ড করেন।

মেয়েটির ভাই অভিযোগ করেন, তার প্রতিবন্ধী বোনকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে রাব্বুল মোল্লা ধর্ষণ করেছে।

শৈলকুপা থানার ওসি আইয়ূবুর রহমান জানান, এখন পর্যন্ত এ ঘটনায় মামলা হয়নি। মৌখিক অভিযোগের ভিত্তিতেই রাব্বুল মোল্লাকে আটকের চেষ্টা চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *