পবিত্র ঈদুল ফিতরের দিন শুক্রবার সড়ক দুর্ঘটনায় সারাদেশে ১০ জন মারা গেছেন। এরমধ্যে বগুড়ায় দুইজন, চট্টগ্রামে দুইজন, নড়াইলে একজন, ময়মনসিংহে দুইজন, খাগড়াছড়িতে একজন, কুড়িগ্রামে একজন ও কুমিল্লায় একজন রয়েছেন। এসময় আরও বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। দিনের বিভিন্ন সময়ে এসব দুর্ঘটনা ঘটে। এসব দুর্ঘটনার বেশিরভাগই ছিল মোটরসাইকেলে।

চট্টগ্রাম

চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ার মরিয়মনগর-রানীরহাট ডিসি রোডে দুটি মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে দুই চালকই নিহত হয়েছেন। শুক্রবার বিকেল ৪টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- রাঙ্গুনিয়ার রাজানগর ইউনিয়নের ফুলবাগিছা গ্রামের বাসিন্দা জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে রাহেদুল ইসলাম ও একই উপজেলার সৈয়দ বাড়ি গ্রামের বাসিন্দা মৃত অতিথিরঞ্জন বড়ুয়ার ছেলে উজ্জ্বল বড়ুয়া।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রাঙ্গুনিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুব মিল্কী।

নড়াইল

নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলায় ঈদে ঘুরতে বের হয়ে এক তরুণ নিহত হয়েছেন। এসময় আরও তিনজন আহত হন। নড়াইল-কালিয়া সড়কের পুরুলিয়া মোড়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত ইবাদুল কালিয়া উপজেলার পেড়লি ইউনিয়নের জামরিল ডাঙ্গা গ্রামের আলমগীর ভূইয়ার ছেলে।

ময়মনসিংহ

ময়মনসিংহের ফুলপুরে ঈদের দিন ঘুরতে গিয়ে বাসচাপায় মোটরসাইকেল আরোহী দুই কিশোর নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরও এক কিশোর।

নিহতরা হলো-সবুজ মিয়া (১৫) ও সৌরভ মিয়া (১৪)। তারা দুজনেই জেলার তারাকান্দা উপজেলার ধলিয়াকান্দা এলাকার বাসিন্দা।

শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে উপজেলার ইমাদপুরে এ ঘটনা ঘটে। ফুলপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইমারত হোসেন গাজী নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, সন্ধ্যার দিকে তারাকান্দা থেকে তিন কিশোর মোটরসাইকেলযোগে ফুলপুর বাসস্ট্যান্ড পার হয়ে ইমাদপুর এলাকায় যেতেই বিপরীত দিক থেকে আসা ইমাম পরিবহনের একটি বাস তাদের চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই সবুজ ও সৌরভ মারা যায়।

খাগড়াছড়ি

খাগড়াছড়িতে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় নাজমুল হোসেন নাঈম (১২) নামের এক কিশোর নিহত হয়েছে। দুপুরের দিকে খাগড়াছড়ি-পানছড়ি সড়কের ভাইবোনছড়া বাজারসংলগ্ন মায়াবিনী লেক রোডে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত নাজমুল হোসেন নাঈম পানছড়ির উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক আইনবিষয়ক সম্পাদক মো. নাছির হোসেনের ছেলে। সে পানছড়ি ইসলামিয়া সিনিয়র মাদরাসার ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র ছিল।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ঈদের দিন বন্ধুদের সঙ্গে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশাযোগে পানছড়ি থেকে মায়াবিনী লেকে ঘুরতে যাচ্ছিল নাঈম। এসময় বিপরীত দিক থেকে আসা মোটরসাইকেলের ধাক্কায় মাথায় আঘাত পেয়ে ঘটনাস্থলেই সে নিহত হয়।

  দুই উপজেলার দুঃস্থদের কম্বল ভাগ করে নিলেন বিএনপি নেতারা

কুড়িগ্রাম

কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারীতে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় মারা যান জামাল উদ্দিন (৬৩) নামের এক বৃদ্ধ। তিনি উপজেলার জয়মনিরহাট ইউনিয়নের দক্ষিণ শিংঝাড় কানুরকুটি (ফকিরটারি) গ্রামের মৃত শাহাবুদ্দিনের ছেলে।

শুক্রবার বিকেলের দিকে ভূরুঙ্গামারী-কুড়িগ্রাম মহাড়কের দেওয়ানের খামার গ্রামের আশা অফিসের পাশে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পরিবার সূত্রে জানা গেছে, বিকেলের দিকে ঈদ উৎসব উপলক্ষে বাইসাইকেলযোগে মেয়ের জামাই ফজলুল হকের বাড়ি যাচ্ছিলেন জামাল উদ্দিন।

কুমিল্লা

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে সড়ক দুর্ঘটনায় শেকু মিয়া (৩০) নামের এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। দুপুরে উপজেলার নানকরা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত শেকু মিয়া সুনামগঞ্জ জেলার জামালগঞ্জ উপজেলার শিবপুর গ্রামের মো. গণি মিয়ার ছেলে। তিনি উপজেলার গোলপাশা ইউনিয়নের নারায়ণপুর এলাকায় খাদিজা ব্রিকফিন্ডের শ্রমিক ছিলেন।

মিয়া বাজার হাইওয়ে পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) ওয়াসিম বাবু জানান, ঈদের নামাজ শেষে শেকু মিয়া বাতিসা ইউনিয়নের মহাসড়কের নানকরা এলাকায় এক স্বজনের সঙ্গে দেখা করতে যান। দুপুর ২টার দিকে কর্মস্থলে ফেরার পথে বেপরোয়া গতিতে আসা একটি মোটরসাইকেল পেছন থেকে তাকে ধাক্কা দেয়। এতে তিনি গুরুতর আহত হন। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে চৌদ্দগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বগুড়া

বগুড়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় দুইজন নিহত হয়েছেন। তারা হলেন-মিলন দাস (৩০) ও নুরুন্নবী (২৩)। নিহত মিলন দাস বগুড়া পৌরসভার ১৪ নম্বর ওয়ার্ডে পুরান বগুড়া হিন্দু পাড়ার সখা দাসের ছেলে। তিনি পেশায় সিএনজিচালিত অটোটেম্পু চালক ছিলেন।

শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে বগুড়া-রংপুর মহাসড়কের বারপুর এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। এসময় রবিন (২৮) নামের অপর এক যুবক গুরুতর আহত হয়েছেন।

একই দিন বিকেলে শাজাহানপুর উপজেলায় প্রাইভেটকার ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে মারা যান কলেজছাত্র নুরুন্নবী।

নিহত নূরুন্নবী উপজেলার সাজাপুর কাগজীপাড়ার আশরাফ আলীর ছেলে। তিনি বগুড়া আজিজুল বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের অনার্স দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ছিলেন।

হাইওয়ে পুলিশ ক্যাম্পের সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) আল হাসান জানান, মহাসড়কে মোটরসাইকেল নিয়ে বেপরোয়া গতিতে ড্যান্সিং করতে গিয়ে প্রাইভেটকারের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ ঘটে। এসময় গুরুতর আহত অবস্থায় মোটরসাইকেল চালক কলেজছাত্র নুরুন্নবীকে শজিমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সন্ধ্যা পৌনে ৭টার দিকে তিনি মারা যান।