এনটিআরসিএ

তথ্য গোপন করে দেখানো শূন্য পদে এনটিআরসিএর সুপারিশের প্রেক্ষিতে গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার আমগঞ্জ কে টি হোসেন সিনিয়র মাদরাসায় নিয়োগ পেয়েছেন এইচএম হাবিবুন্নাহার জেলি নামে এক প্রার্থী। তার নিয়োগ স্থগিত চেয়ে রীট মামলা দায়ের করেছেন প্রতিষ্ঠানটির প্রভাষক মো. শহিদুল ইসলাম।

জানা গেছে, গত ৪ ফেব্রুয়ারি এনটিআরসিএর সুপারিশের প্রেক্ষিতে গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার আমগঞ্জ কে টি হোসেন সিনিয়র মাদরাসায় নিয়োগ পান এইচএম হাবিবুন্নাহার জেলি। কিন্তু প্রতিষ্ঠানটির অন্য এক প্রভাষক মো. শহিদুল ইসলাম দাবি করেছেন, তথ্য গোপন করে এসটিআরসিএকে শূন্য পদ দেখানো হয়েছে। আর সে পদে সুপারিশ পেয়েছেন হাবিবুন্নাহার জেলি। তাই নিয়োগটি স্থগিত চেয়ে হাইকোর্টে রীট মামলা দায়ের করেছেন এ প্রভাষক।

  সৈনিক পদে লোকবল নিচ্ছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী

ইতোমধ্যে মাদরাসার অধ্যক্ষকে এ রীট মামলার ‘আইন প্রতিবন্ধকতাকরণসহ’ প্রয়োজনীয় আইনগত পদক্ষেপ গ্রহণ করতে বলেছে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)। এছাড়া অধ্যক্ষকে এ মামলার বিষয়ে নেয়া আইনগত পদক্ষেপ সম্পর্কে এনটিআরসিএকে জানাতে বলা হয়েছে। গত ২৮ মে এনটিআরসিএ থেকে অধ্যক্ষকে চিঠি পাঠানো হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *