ঢাকাঃ প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বঙ্গবন্ধুর ছোট ভাই শেখ আবু নাসেরের স্ত্রী, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চাচী ও শেখ তন্ময়ের দাদি বেগম রাজিয়া নাসের ডলি মারা গেছেন। (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)

সোমবার (১৬ নভেম্বর) সন্ধ্যায় রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে তিনি মারা যান। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৩ বছর।

আজ রাত দশটার দিকে নিজের ভ্যারিফায়েড ফেসবুক পেইজে দাদির মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন সংসদ সদস্য শেখ তন্ময়।

তন্ময় লিখেছেন, আমার দাদি আমাদের মাঝে আর নেই। তার বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করে সবাই দোয়া করবেন। মহান আল্লাহ যেন আমার দাদিকে বেহেশত নসিব করেন। আমিন।

তিনি আরও লিখেছেন, আমার দাদি আমার কাছে সব সময় ভিন্ন এক অনুভূতির নাম। তার কাছ থেকেই দাদাকে জেনেছি, জেনেছি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সম্পর্কে। রাজনীতি শেখার অদম্য ইচ্ছার তৃষ্ণা নিবারণে আমার প্রথম প্রেরণা আমার দাদি। তিনি আমার অনুভূতিতে এতোটা বিস্তৃত জায়গা জুড়ে রয়েছেন; যেখানে আমি সব থেকে নিরাপদ এবং এগিয়ে যাওয়ার নিঃস্বার্থ প্রেরণা পাই।

  বদলি আদেশ অমান্য করলে বেতন বন্ধ

অপরদিকে শেখ রাজিয়া নাসেরের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

উল্লেখ্য, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চাচী রাজিয়া নাসের করোনা আক্রান্ত হয়ে এভারকেয়ার হসপিটালে লাইফ সাপোর্টে ছিলেন। আজ সোমবার দুপুরে শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে থাকলে তাকে রাজধানীর এভারকেয়ার হসপিটালে লাইফ সাপোর্টে নেয়া হয়।

এর আগে, ৫ নভেম্বর বার্ধক্যজনিত কারণে রাজিয়া নাসেরকে এভারকেয়ার হসপিটালে ভর্তি করা হয়। এসময় বাগেরহাট-২ আসনের সাংসদ শেখ তন্ময় তার দাদির জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া প্রার্থনা করেন।

মৃত্যুকালে বেগম রাজিয়া নাসের ৪ পুত্র সন্তান রেখে গেছেন। তারা হলেন শেখ আব্দুল্লাহ রুবেল, শেখ হেলাল উদ্দিন, শেখ সালাউদ্দিন জুয়েল ও শেখ সোহেল। এদের মধ্যে শেখ সোহেল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড-এর পরিচালক ছিলেন এবং শেখ হেলাল ছিলেন একজন সংসদ সদস্য।