কল্পিত বীরোদ্রেক
শীলন মালিক

মর্ত্যের অমানিশায় আসুক ধেয়ে কোনও এক নব কল্পিতবীর
দু’হাতে তাঁর ফুলের গুচ্ছ নেত্রদ্বয়ে সাম্যতা নীর!

দ্যুলোকঅশ্বে আরোহণ করি ভেদাভেদ ভুলি বিদ্বেষ জাতকূল
অক্ষিভরি লক্ষ্য তারি সমন্বয়তা উন্নয়না বিভোল।

দিক্-বিদিক সেনাপতি তাঁর উড়ায় মানব সহমর্মিত সুনিশান
গুঁড়ায়ে মারে ঝঞ্ঝা ত্বরা রূঢ়তার ঔদ্ধত খরতান।

কল্পিত বীরের ঠিক না রবে পরিধার মিছে রঙ্গ অহংকার
সহনাগরিক সন্তর্পনে ঘুচোবে বর্ষিত কদাচার।

  'কর্মস্থলে মৃত্যুতে আজীবন আয়ের সমান ক্ষতিপূরণের বিধান নিশ্চিতের দাবি'

তীর্থপুরি ধারে নাকো ধার গোঁড়া সম্প্রদা রুধিরাক্ত কুবিধান
মানব কল্যাণে ঔদার্য ন্যায়পরায়ণ নিবেদিতপ্রাণ!

ধূর্তজনা কোপানলে অবগাহন যত গাক না নিন্দাতুর সংগীত
ধৈর্যদ্বারে সদা কড়ানাড়ে অনবরত সাম্যতা স্ফীত।

ঐ-শোন ভাই বাজে সানাই সাম্যের বিজয়া হর্ষপুলক ডামাডোল
ঐক্যতানে ভূ-উদ্যানে সর্ব পরতে বহক অনর্গল!!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *