রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলার হরিনবাড়ীয়া বাজারে খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির চাল বিতরণে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার কালিকাপুর ইউপির ৮ ও ৯ নং ওয়ার্ডের ভুক্তভোগীরা জানায় ,স্থানীয় ডিলার রিপন মন্ডল ৩০ কেজির প্যাকেট থেকে ৩ কেজি চাল বের করে ট্রাগ অফিসার মোঃ আনসার আলীর সামনে ২৭ কেজি করে চাল বিতরন শুরু করে।

এ সংবাদ শুনে স্থানীয় ইউপি সদস্য বিল্লাল মন্ডল ও মনোয়ার হোসেন ৩০ কেজির প্যাকেট ওজন দিয়ে ২৭ কেজি চাল দেখতে পায়। তারা বিষয়টি কালুখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার কামরুন নাহার কে অবগত করলে তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। পরে তার উপস্থিতিতে ৩০ কেজি করে চাল বিতরণ শুরু হয়।

ডিলার রিপন মন্ডল জানায়, খাদ্য গুদাম থেকে ৩ কেজি করে চাল কম দিয়ে প্যাকেট তৈরি করা হয়েছে। এজন্য কম দিয়েছি।

উপ খাদ্য পরিদর্শক একরাম হোসেন জানায়, কোথায়ও কোন প্যাকেটে ৩০ কেজির কম চাল দেওয়া হয়নি। তাই চাল কম দেওয়ার কোন সুযোগ নেই। কেউ চাল কম দিলে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

  গাইবান্ধা জেল সুপার বিরুদ্ধে হরিজন সম্প্রদায়ের বিক্ষোভ

মঙ্গলবার সকাল থেকে রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলার মদাপুর ইউনিয়নের গাদিমারা বাজারে খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির চাল বিতরণ শুরু হয়েছে। ওই বাজারের ডিলার আঃ বারেক জানায়,প্রত্যেক কার্ডধারীকে ৩০ কেজি করে চাল বুঝে দেওয়া হচ্ছে। পরিবহনের কারনে কোন প্যাকেটের চাল কমে গেলে আমি তার ভর্তুকি দিচ্ছি।

এদিকে মঙ্গলবার সকাল থেকে রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলার রতনদিয়া ইউনিয়নের হরিনবাড়ীয়া বাজারে খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির চাল বিতরনে শুরু হয়েছে।

ওই বাজারের ডিলার জয়নাল আবেদীন জানায়, প্রত্যেক কার্ডধারীকে ৩০ কেজি করে চাল বুঝে দেওয়া হচ্ছে। এখন পর্যন্ত কোন প্যাকেটে ৩০ কেজির কম চাল পাইনি। তাই কম বা বেশি দেওয়ার সুযোগ নেই।

আমাদের বাণী-আ.আ.হ/মৃধা

[wpdevart_like_box profile_id=”https://www.facebook.com/amaderbanicom-284130558933259/” connections=”show” width=”300″ height=”550″ header=”small” cover_photo=”show” locale=”en_US”]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *