কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় (কুবি) নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীর সাথে আপত্তিকর মন্তব্য করার অভিযোগে বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশ্ববর্তী এক দোকানিকে মারধর করেছে শিক্ষার্থীরা। বৃহস্পতিবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের মূলগেইট সংলগ্ন দোকানে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন ‘বিসমিল্লাহ হার্ডওয়্যার স্টোর’ নামের বিকাশ দোকানে টাকা তুলতে যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃবিজ্ঞান ১১ তম ব্যাচের এক ছাত্রী। ভাংতি টাকা না থাকা নিয়ে দোকানদার সাদ্দামের সাথে কথা বলার এক পর্যায়ে দোকানি ঐ ছাত্রীকে বিশ্ববিদ্যালয়কে নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য করে।বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে অপমানজনক কথা বলার একপর্যায়ে ঐ ছাত্রী কান্না করে চলে আছে। পরে ছাত্রী সহপাঠিদের এ ঘটনা জানালে শিক্ষার্থীরা ক্ষুব্ধ হয়ে অভিযুক্ত দোকানিকে ধরে মারধর করে। মারধরের এক পর্যায়ে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা দোকানটি বন্ধ করে দেয়। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ঘটনাস্থলে যেয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে নিয়ে আসে।

ঘটনাস্থলে বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থীর সাথে কথা বলে জানা যায়, অভিযুক্ত দোকানি এর আগেও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সাথে খারাপ আচরণ করেছেন। আবারো বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে আপত্তিকর কথা বলায় আমরা দোকানিকে মারধর করি। এবিষয়ে অভিযুক্ত দোকানি সাদ্দামের বড় ভাই মিজান বলেন, আমার ছোট ভাই পড়ালেখা করেনি। সে না বুঝে বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কে খারাপ মন্তব্য করেছে। সামনে থেকে এমন হবে না বলে এ ঘটনায় সবার কাছে ক্ষমা চান তিনি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. কাজী মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন বলেন, আমরা শিক্ষার্থীদের বুঝিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে এনেছি। অভিযুক্ত দোকানি থেকে মুচলেকা নেয়া হয়েছে। সামনে থেকে কেউ বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে মানহানিকর কিছু বললে তার বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

[wpdevart_like_box profile_id=”https://www.facebook.com/amaderbanicom-284130558933259/” connections=”show” width=”300″ height=”550″ header=”small” cover_photo=”show” locale=”en_US”]

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।