কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল

হুমায়ুন কবির, কুষ্টিয়া জেলা সংবাদদাতা; জেলায় ঈদের আমেজে প্রেমিকের মটরসাইকেলে ঘুরতে গিয়ে দূর্ঘটনার শিকার হয়ে প্রেমিকার মৃত্যু হয়েছে। প্রেমিকার নাম আনিকা খাতুন। সে কুষ্টিয়া সদর উপজেলার আইলচারা ইউনিয়নের বলভপুর ক্যানারপাড়ার মেয়ে। তার প্রেমিক জুয়েল কুষ্টিয়া সদর উপজেলার আলামপুর ইউনিয়নের স্বর্গপুর গ্রামের মনি মন্ডলের ছেলে ।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানাযায়, ঈদের পরের দিন গতকাল  (২৬ মে) দুপুরে প্রেমিকা আনিকা খাতুন কে মটরসাইকেলে নিয়ে বলভপুর থেকে স্বর্গপুরের দিকে যাচ্ছিল জুয়েল। হটাৎ দূর্ঘটনার শিকার হয়ে প্রেমিকা আনিকা গুরুতর আহত হয়। ঘটনার পর আনিকাকে জুয়েল কুষ্টিয়া ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে পালিয়ে যায়। পরে লোকমুখে শুনে আনিকার পরিবারের লোকজন হাসপাতালে গেলে তার উন্নত চিকিৎাসার জন্য রাতে রাজশাহীতে রেফার্ড করেন। তাকে রাজশাহীতে নিয়ে যাওয়ার পথে রাতেই  মৃত্যু হয়।

  বন্ধ আল ফেরদৌস রি-রোলিং মিল চালুর দাবি

এদিকে আহত অবস্থায় প্রেমিকাকে হাসপাতালে ভর্তি করে তাকে ফেলে রেখে প্রেমিক জুয়েলের পালিয়ে যাওয়ার ঘটনায় জনমনে নানা গুঞ্জনসহ রহস্যের সৃষ্টি হয়েছে। কিছুক্ষন আগে আনিকার লাশ এসে তার বাড়িতে পৌছেছে। সেখানে শোকের মাতম চলছে।

কুষ্টিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম মোস্তফা আনিকার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনার পর থেকে প্রমিক জুয়েল পলাতক রয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ওই যুবককে ধরতে অভিযান চলছে।

আমাদের বাণী ডট কম/২৭  মে ২০২০/সিসিপি