Shadow

কে হচ্ছে ধর্ম মন্ত্রী!

শেয়ার করুনঃ
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ডেস্ক রিপোর্ট, ঢাকা;  বৈশ্বিক মহামারি করোনার আঘাতে প্রত্যেক সেক্টরে দেখা দিয়েছে শূন্যতা। বাদ পড়েনি মন্ত্রিপরিষদও। প্রয়াত ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মো. আবদুল্লাহর মৃত্যুর পর অভিভাবকহীন হয়ে পড়েছে ধর্ম মন্ত্রণালয়।

  • কে আসছেন প্রয়াত ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর উত্তরসূরি হয়ে তা নিয়ে রাজনৈতিক মহলে চলছে নানা জল্পনা-কল্পনা। ইতোমধ্যে বেশ কয়েকজনের নাম শোনা গেলেও বেশি কানাঘুষা চলছে ময়মনসিংহ-৭ আসন থেকে নির্বাচিত আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ সদস্য হাফেজ রুহুল আমিন মাদানীকে নিয়ে।

গণভবন সূত্রে জানা গেছে, একজন দক্ষ ও ধর্মীয় বিষয়ে জ্ঞান আছে, বিতর্কমুক্ত এবং সাধারণ মানুষের কাছে গ্রহণযোগ্যতা রয়েছে— এমন ব্যক্তিকে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দিতে চান আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

  • এজন্য মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব নিতে আগ্রহী দায়িত্বশীল নেতাদের বিষয়ে বিভিন্নভাবে খোঁজখবর নিচ্ছেন তিনি। তাই এই মন্ত্রণালয়ে সর্বশেষ কে দায়িত্ব পাচ্ছেন তা সম্পূর্ণ নির্ভর করছে সরকার প্রধানের ওপর। মূলত মন্ত্রিপরিষদে নতুন কাউকে যুক্ত বা বাদ দেয়ার একমাত্র এখতিয়ার একমাত্র প্রধানমন্ত্রীর।

সূত্র মতে, ধর্ম মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বের আশায় করোনার ঝুঁকি মাথায় নিয়ে মাঠের রাজনীতিতে সক্রিয় রয়েছেন আওয়ামী লীগের একঝাঁক প্রবীণ এবং নবীন নেতা। করোনাকালীন সময়ে সরকার প্রধানের দপ্তরে যাওয়ার সুযোগ না পেলেও বিভিন্ন আস্থাভোজন সূত্র থেকে সর্বশেষ খোঁজখবর রাখছেন তারা। কেউ কেউ মোবাইল ফোনেই আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় পর্যায়ের নেতাদের কাছে লবিং করছেন।

তথ্য মতে, সংসদ সদস্য হাফেজ রুহুল আমিন মাদানী এই পর্যন্ত দুই বার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। প্রথম নির্বাচিত হন ১৯৯৬ সালে।

  • বর্তমানে ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন তিনি। এছাড়া, ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি হিসেবেও দায়িত্ব পালন করে আসছেন হাফেজ রুহুল আমিন মাদানী।

এছাড়াও ঝালকাঠি-১ আসনের বজলুল হক হারুন এবং চট্টগ্রাম-২ আসন থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য, বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশনের চেয়ারম্যার সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভাণ্ডারিকে নিয়েও গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে। এদের মধ্যে বজলুল হক হারুন এ পর্যন্ত তিনবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন।

  • আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন সরকারের গত মেয়াদে তিনি ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন। বর্তমানে বাংলাদেশ সৌদি-আরব সংসদীয় মৈত্রী গ্রুপের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করছেন তিনি।

এছাড়া, ঝালকাঠি জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতির দায়িত্বও পালন করছেন এই সংসদ সদস্য। অপরদিকে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের ১৪ দলীয় জোট শরিক দল বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশনের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভাণ্ডারি। এই পর্যন্ত তিনি চারবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। বিগত দিনের মাঠের আন্দোলন-সংগ্রামে কঠোর পরিশ্রম করেছেন তিনি।

  • ১৪ দলীয় জোট সূত্রে, একাদশ জাতীয় নির্বাচনের মধ্যদিয়ে টানা তৃতীয় মেয়েদে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় রয়েছে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বধীন ১৪ দলীয় জোট সরকার। তৃতীয় মেয়াদের এ সরকারের মন্ত্রিসভায় স্থান পাননি ১৪ দলীয় জোট শরিক দলের কোনো নেতা। যা নিয়ে প্রথম থেকেই ক্ষোভ বিরাজ করছে জোটের রাজনীতিতে।
  • বিশেষ করে অনেক সময় সরকারের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে প্রকাশ্যে সমালোচনায় জড়িয়েছেন জোট শরিক দলের শীর্ষ নেতারা। ফলে ১৪ দলীয় জোটের শরিক দল বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশনের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভাণ্ডারিকে ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব দিতে পারেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
  বাংলাদেশে নারীরা বেশি আত্মহত্যা করে: ডাব্লিউএইচও

সূত্রের দাবি, ব্যক্তিগত অবস্থান থেকে তিনজনই ওই পদের যোগ্য। তাদের যথেষ্ট অভিজ্ঞতাও আছে।

আ.লীগ সূত্রে জানা যায়, হাফেজ রুহুল আমিন মাদানী, বজলুল হক হারুন এবং সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভাণ্ডারি ছাড়াও ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের অনেক নেতাই ধর্ম মন্ত্রণালয়ে দায়িত্ব পেতে সরকারের বিভিন্ন দপ্তর এবং দলটির শীর্ষপর্যায়ের নেতাদের কাছে দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছেন।

  • যদিও এই মন্ত্রণালয়ে সর্বশেষ কে দায়িত্ব পাচ্ছেন বা কাকে দায়িত্ব দেয়া হবে তা নির্ভর করছে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওপর।

উল্লেখ্য, গত ১৪ জুন করোনায় আক্রান্ত হয়ে শেখ আবদুল্লাহ মৃত্যুবরণ করেন। এর আগে আওয়ামী লীগ টানা তৃতীয়বারের মতো সরকার গঠন করলে ২০১৯ সালের ৭ জানুয়ারি গঠিত মন্ত্রিসভায় টেকনোক্র্যাট কোটায় ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পান তিনি।

আমাদের বাণী ডট কম/২৮ জুন ২০২০/পিপিএম

শেয়ার করুনঃ
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •