ঠাকুরগাঁওয়ে কোল্ড স্টোরেজের নির্গত গ্যাসে ৩০ একর জমির ফসল ক্ষতির মুখে পড়েছে। কৃষকের আবাদ করা মরিচ, গম, মিষ্টিকুমরা, আম লিচুসহ বেশকিছু গাছ পুড়ে গেছে। ক্ষতিপুরণ দাবি করেছেন কৃষকরা। স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও উপজেলা কৃষি কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা তৈরি করেছেন।

স্থানীয় কৃষকদের অভিযোগ, মঙ্গলবার ভোররাতে আমানত কোল্ডস্টোরেজ প্রাইভেট লিমিটেড থেকে নির্গত হওয়া গ্যাস পুরো এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে। এ অবস্থায় অনেকে বাড়িঘর ছেড়ে অন্যত্র রাত যাপন করছেন। সকালে জমিতে গিয়ে তারা দেখতে পান ফসল পুড়ে গেছে ।

ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা তৈরি হলেও জমির ফসল নষ্ট হয়ে যাওয়ায় ঋণ, মহাজনের টাকা পরিশোধ নিয়ে দুশ্চিন্তায় রয়েছেন কৃষকরা। আমানত কোল্ড স্টোরেজের কর্মচারি আব্দুল জব্বার জানান, হঠাৎ রাতে গ্যাসের পাইপলাইন লিক হয়। এ কারণে দ্রুত গ্যাস ছড়িয়ে পড়ে। পরে ফায়ার সার্ভিসকর্মীরা প্রায় চার ঘণ্টা পর বন্ধ করতে সক্ষম হয়। এটি একটি দুর্ঘটনা।

  কুষ্টিয়ায় মোট ২২ পুলিশ সদস্য করোনায় আক্রান্ত

স্থানীয় আকচা ইউপি চেয়ারম্যান জানান, কোল্ড স্টোরেজের গ্যাসের কারণে স্থানীয় অনেকে অসুস্থ হয়ে পড়েন। সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধানে একটি টিম মঙ্গলবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত তাদের চিকিৎসাসেবা দিয়েছেন। এলাকার কৃষকরা খুব গরিব, আমরা চাই তারা যেন ক্ষতিপূরণ পায়। সদর উপজেলার উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা দিদারুল ইসলাম জানান, এ পর্যন্ত ৭০ জন ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকের তালিকা তৈরি করেছি। তাদের প্রায় ৩০ একর জমির ফসল পুড়ে গেছে নির্গত গ্যাসের কারণে। আমরা এই তালিকা উপজেলা প্রশাসন বরাবর জমা দেব।

কোল্ডস্টোরেজ মালিক আব্দুল্লাহ জানান, বিষয়টি প্রশাসন তদন্ত করছে। তদন্তের পর স্থানীয়দের সঙ্গে বসে বিষয়টি সুরাহা করা হবে।

আমাদের বাণী-আ.আ.হ/মৃধা

[wpdevart_like_box profile_id=”https://www.facebook.com/amaderbanicom-284130558933259/” connections=”show” width=”300″ height=”550″ header=”small” cover_photo=”show” locale=”en_US”]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *