পানির নিচে দুই'শ একর কৃষিজমি

কুষ্টিয়া জেলা সংবাদদাতা; জেলার খোকসা উপজেলার হাসিমপুর পশ্চিমপাড়া মৌজার দক্ষিন মাঠ থেকে বৃষ্টির পানি নিষ্কাশনের পথ না থাকায় তলিয়ে গেছে কৃষকের দেড় ‘শ একর জমির ফসল। ভেসে গেছে এলাকার শতাধিক মাছের পুকুর ও প্লাবিত হয়েছে নিচু এলাকার বেশ কিছু বাড়ীঘর।

খোকসা হাসিমপুর মৌজার কৃষকের মাঠের পানি ব্যাক্তি মালিকানা মোল্লা বাড়ির জমির উপর দিয়ে পানি নিষ্কাশনের নালা ছিল। সেই নালা দিয়ে উক্ত মাঠের পানি বের হয়ে মোড়াগাছা খাল হয়ে গড়াই নদীতে পড়ত। কিন্তু সেই মালিকানা জমি এখন ভরাট করে বসতবাড়ি হয়েছে, এর কারনে গত ‘দু বছর হল মাঠের বৃষ্টির পানি বের হতে পারছে না। ফলতো পানিতে ডুবে নষ্ট হয় কৃষকের উঠতি ফসল। ভেসে গেছে পুকুরের মাছ ও প্লাবিত হয়েছে এলাকার বসতবাড়ি।

আজ বুধবার (২৭ মে ২০২০)  ভোরে প্রচন্ড বৃষ্টিতে ডুবে গেছে এই মাঠের প্রায় দুই শত একর জমির বোর ধান, পাট। ভেসে গেছে মোল্লাবাড়ির বড় পুকুরসহ শতাধিক পুকুরের লক্ষাধিক টাকার মাছ, পানি ঢুকে পরেছে বেশ কিছু নিম্ন এলাকার বসতবাড়িতে।

  ভালুকায় আটক ইউপি চেয়ারম্যান রিমান্ডে

এ বিষয়ে খোকসা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ সবুজ কুমার সাহা বলেন এলাকাবাসীর লিখিত আবেদন করলে তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এ বিষয়ে উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা রাশেদ হাসান স্থানীয় সাংবাদিকদের জানান এলাকার মৎস্য চাষীদের কোন অভিযোগ এখন পর্যন্ত আমার কাছে আসেনি। অভিযোগ করলে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

উপজেলার হাসিমপুর মৌজার ৫ নং ওয়ার্ডের কৃষক আলতাফ মোল্লা জানান আমরা গত বছর একাধিকবার উপজেলা প্রশাসন, কৃষি অফিস এবং মৎস্য অফিসে জানিয়েছি। কিন্তু অদ্যাবধি কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় এবারও আমরা কৃষি ও মৎস্য তে ব্যাপক ক্ষতির সম্ভাবনা আশঙ্কা করছি। এরই মাঝে উঠতি বোর ধান ও পাট বৃষ্টির পানিতে তলিয়ে রয়েছে।

এলাকাবাসির আকুল আবেদন, জরুরী ভিত্তিতে হাসিমপুর পশ্চিমপাড়ার মৌজার দুই’শ একর জমির পানি দ্রুত নিষ্কাসন করে এলাকার কৃষকদের উঠতি বোর ধান ও মৎস্য সম্পদ রক্ষায় প্রশাসনের একান্ত মর্জি হয়।

আমাদের বাণী ডট কম/২৭  মে ২০২০/সিসিপি