এসএসসি পরীক্ষায় অকৃতকার্য, শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা

সুনামগঞ্জের বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার পলাশ গ্রামে ছাগলের গাছ খাওয়া নিয়ে ভাতিজার ছুরিকাঘাতে চাচা খুন হয়েছেন। মঙ্গলবার মাগরিবের নামাজ পড়ে মসজিদ থেকে ফেরার পথ খুন হন পলাশ গ্রামের মৃত দিদার হোসেনের ছেলে শুক্কুর আলী (৫০)।

এদিকে রাত ৯ টার দিকে বিশ্বম্ভরপুর হাসপাতালের একটি পরিত্যক্ত কক্ষ থেকে চাচাকে খুনের অভিযোগে আব্দুল আজিজের ছেলে সালাউদ্দিনকে (২২) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বিশ্বম্ভরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত ওসি মো. মাহবুবুর রহমান জানান, পলাশ গ্রামের শুক্কুর আলী ও তার ভাতিজার মধ্যে গরু ছাগলের চলাচলের রাস্তা, গাছ খাওয়া ইত্যাদি তুচ্ছ বিষয় নিয়ে বিরোধ চলছিল। মঙ্গলবার বিকালে এ নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে ঝগড়াবিবাদ হয়। এর জেরে গ্রামের মসজিদ থেকে মাগরিবের নামাজ থেকে ফেরার পথে শুক্কুরের ভাতিজা সালাউদ্দিন পথরোধ করে তার বুকে উপর্যপুরি ছুরিকাঘাত করতে থাকে। তার চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে পালিয়ে যায় সালাউদ্দিন।
পরে স্থানীয়রা তাকে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত ডাক্তার মৃত ঘোষণা করেন। অতিরিক্ত রক্ষক্ষরণের কারণে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়েছে বলে জানান চিকিৎসক।

  খুলনায় করোনা উপসর্গ নিয়ে ৬ মাসের শিশুর মৃত্যু

ওসি আরো জানান, খুনের পর পলাতক সালাউদ্দিনকে ধরতে তৎপরতা শুরু করে পুলিশ। রাত ৯টার দিকে বিশ্বম্ভরপুর হাসপাতালের একটি পরিত্যক্ত কক্ষ থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

তিনি জানান, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *