ঠাকুরগাঁও জেলায় শ্বাশুরী- বউমার দ্বন্দে শ্বাশুড়ীর দেয়া আগুনে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার চিলারং ইউনিয়নের সনগাঁও কোয়াটালী গ্রামের ৭টি পরিবারের ২৬ টি ঘর ভুষ্মিভুত হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১০ টার সময় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানায়, ঘটনার আগে ওই এলাকার বাবুলের স্ত্রী সবুরা ও ছেলে জেকিরের স্ত্রী বেবীর দীঘদিনের দ্বন্দের ঘটনা অবসানের জন্য উভয় পক্ষ মিমাংসার জন্য বসে । সে সময় বাবুলের স্ত্রী ও বেবীর শাশুড়ী সবুরা বাড়ির পাশে খড়ি ঘরে আগুন লাগিয়ে পালিয়ে যায়। আগুন দ্রুত ছাড়িয়ে পরলে সফিকুল, আব্দুল্লাহ, আলমগীর, জাকির, জেকির ও বাবুরের বাড়ির ২৬ টি ঘরসহ প্রয়োজনীয় সকল মালামাল পুড়ে যায়।

বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন ইনচার্জ গোলাম মোস্তাফা ঘটনার সত্যত্যা নিশ্চিত করে জানান, মুঠোফোনে খবর পাওয়ার পর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। অগ্নিকান্ডে পল্লী বিদ্যুতের ৬ টি আবাসিক মিটারসহ একটি গভীর নলকুপের সংযোগ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে জানান তিনি। এছাড়াও প্রায় ২০ লক্ষ টাকার মালামাল রক্ষা করছেন তার। অগ্নিসংযোগের ঘটনার পর থেকে বাবুল ও স্ত্রী সবুরা পলতক রয়েছেন।

  আত্মগোপনে থাকা প্রবাসীদের পাসপোর্ট বাতিল

চিলারং ইউপি চেয়ারম্যান আয়ুব আলী বলেন, শুনেছি অগ্নি সংযোগে কয়েটি পরিবারে সব কিছু পুড়ে গেছে। ঠাকুরগাঁও সদর নির্বাহী কর্মকর্তা আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে শুকনা খাবার এবং কম্বল প্রদান করা হয়েছে।

ঠাকুরগাঁও সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আশিকুর রহমান বলেন, আগুনে পুড়ে গেছে শুনেছি তবে এ বিষয়ে কেউ কোন লিখিত অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

আমাদের বাণী-আ.আ.হ/মৃধা

[wpdevart_like_box profile_id=”https://web.facebook.com/amaderbanicom-284130558933259/” connections=”show” width=”300″ height=”550″ header=”small” cover_photo=”show” locale=”en_US”]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *