ঢাকা উত্তরের মেয়র মন্ত্রী

আওয়ামী লীগের সমর্থন নিয়ে জয়ী ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলামকে মন্ত্রীর মর্যাদা দিয়েছে সরকার। অন্যদিকে রাজশাহীর সিটি কর্পোরেশনের (রাসিক) মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন ও খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আবদুল খালেককে প্রতিমন্ত্রীর পদমর্যাদা দেয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে তিন মেয়রের মর্যাদা নির্ধারণ করে আদেশ জারি করা হয়েছে।

দেশে বর্তমানে ১২টি সিটি কর্পোরেশেন রয়েছে। মেয়র আনিসুল হক মারা যাওয়ার পর গত ২৮ ফেব্রুয়ারি বিএনপির অংশগ্রহণবিহীন নিরুত্তাপ ডিএনসিসি মেয়র নির্বাচনে জয়ী হন আওয়ামী লীগের প্রার্থী মো. আতিকুল ইসলাম। প্রয়াত মেয়র আনিসুল হককেও মন্ত্রীর মর্যাদা দেয়া হয়েছিল।

এর আগে গত বছরের ৩০ জুলাই রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুলকে হারিয়ে জয়ী হন আওয়ামী লীগের প্রার্থী খায়রুজ্জামান লিটন। অন্যদিকে গত বছরের ১৫ মে খুলনার মেয়র নির্বাচিত হন আরেক আওয়ামী লীগের প্রার্থী তালুকদার আবদুল খালেক।

  মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত হত্যা: ওসি মোয়াজ্জেমের ৮ বছরের কারাদণ্ড

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের আদেশে বলা হয়েছে, স্ব স্ব পদে অধিষ্ঠিত থাকাকালীন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম মন্ত্রী এবং রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন ও খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আবদুল খালেক প্রতিমন্ত্রীর পদমর্যাদা, বেতন-ভাতা ও আনুষঙ্গিক অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা প্রাপ্য হবেন।

নির্বাচিত হওয়ার পর সরকার এ মেয়রদের কোনো মর্যাদা নির্ধারণ করেনি। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, মেয়রদের পদমর্যাদা ঠিক না হওয়ায় রাষ্ট্রীয় কোনো অনুষ্ঠানে মেয়রদের প্রটোকল নিয়ে সমস্যা হচ্ছে। তারা কোথায় বসবেন তা নির্ধারণ করা যাচ্ছে না।

সিটি কর্পোরেশন আইনে মেয়রদের পদমর্যাদা নির্ধারণ বিষয়ে কিছু বলা নেই। তাই সরকারগুলো নিজেদের মতো করে পদমর্যাদা নির্ধারণ করে নেয়। বিএনপি আমলেও ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের (অভিভক্ত) মেয়রকে মন্ত্রীর পদমর্যাদা দেয়া হয়েছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *