মারমা সম্প্রদায়ের বর্ষবরণ অনুষ্ঠান সাংগ্রাই আগামী ১৩ই এপ্রিল

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি সরকারী হাসপাতালের আবাসিক স্বাস্থ্য কর্মকর্তা (আরএমও) ডাঃ মাহফুজ এর বিরুদ্ধে যৌতুকের দাবীতে নির্যাতনের অভিযোগ করেছেন তার স্ত্রী ফারহানা।

যৌতুকের জন্যে প্রতিদিন স্বামীর কাছে অমানবিক নির্যাতনের শিকার ফারহানা নিজেকে এবং তার সন্তানের জীবন বাঁচাতে তার বাবার বাড়ি ভৈরবে গিয়ে আশ্রয় নেয়। সেখানে গিয়ে ও রক্ষা হয নি তার। গত এপ্রিলের ৪ তারিখ শ্বশুর বাড়িতে গিয়ে উপস্হিত হয় মাহফুজ।

এ সময়ে কৌশলে নিজের শিশু সন্তান নিয়ে আত্মগোপনে চলে যায় সে।এ বিষয়ে ৮এপ্রিল কক্সবাজার পুলিশ সুপার বরাবর স্বামীর বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন ফারহানা।জানা যায় ২০১৬ সালে ডাঃ মাহফুজ ও ফারহানা নিগারের বিয়ে হয়। বিয়ের পর কক্সবাজারের ঈদগাঁহ তে একটি বাসা ভাড়া করে বসবাস করছিলেন এই দম্পতি। এই এলাকায় মাহফুজের দুটি ব্যবসা প্রতিষ্টান ও রয়েছে।পুলিশ সুত্র জানায় অভিযোগের বিষয় টি আমলে নিয়ে ইতিমধ্যেই আইনগত ব্যবস্থা নিতে ঈদগাও পুলিশ কে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।ডাঃ মাহফুজ এর বর্তমান কর্মস্হল

  মাগুরায় অসহায়দের পাশে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ইসার্ডো

নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলায় হওয়ার প্রেক্ষিতে নাইক্ষ্যংছড়ি মডেল থানা পুলিশের সহযোগীতায় ১৬ এপ্রিল হাসপাতালে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় অভিযুক্ত কে গ্রেফতার করা যায় নি।উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা জানায় ডাঃ মাহফুজ কর্মস্থলে অনুপস্থিত। এ বিষয়ে উদ্ধর্তন কতৃপক্ষ কে জানানো হয়েছে। এ দিকে নিজের শিশু সন্তান কে ফিরে পেতে মা ফারহানা নিগারের আর্তনাদ যেন থামছে না।এ বিষয়ে আইন প্রয়োগকারী সংস্থা সক্রিয় রয়েছে।

আমাদের বাণী-আ.আ.হ/মৃধা

[wpdevart_like_box profile_id=”https://www.facebook.com/amaderbanicom-284130558933259/” connections=”show” width=”300″ height=”550″ header=”small” cover_photo=”show” locale=”en_US”]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *