চাঁদপুর-৫ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য এম এ মতিন

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঢাকা;  চাঁদপুর-৫ (হাজীগঞ্জ-শাহরাস্তি) আসনের সাবেক সংসদ সদস্য এবং বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য এম এ মতিন আর নেই। ইন্না-লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।

আজ মঙ্গলবার (২৬ মে ২০২০) সকাল ৯টার দিকে রাজধানীর একটি হাসপাতালে তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৭ বছর।

এম এ মতিন চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ পৌরসভাধীন টোরাগড় গ্রামের প্রয়াত জুনাব আলী মুন্সীর ছেলে। এক ছেলে ও চার মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন তিনি।

এর আগে বার্ধক্যজনিত কারণে দুমাস ধরে অসুস্থ ছিলেন এম এ মতিন। শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে রাজধানীর একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ সকালে মারা যান তিনি।

হাজীগঞ্জ-শাহরাস্তির মানুষের কাছে মতিন স্যার হিসেবে খ্যাত এম এ মতিন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির প্রার্থী হিসেবে সংসদীয় আসন চাঁদপুর-৫ (হাজীগঞ্জ-শাহরাস্তি) থেকে চারবার প্রতিনিধিত্ব করেছেন।

  ৪ মাস গ্যাস-বিদ্যুতের বিল না দেয়ার নির্দেশ

এ ছাড়া এম এ মতিন উপজেলা চেয়ারম্যান ও হাজীগঞ্জ সদর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি হাজীগঞ্জ পাইলট হাই স্কুলে শিক্ষকতা করেছেন, বর্তমানে যেটি হাজীগঞ্জ সরকারি মডেল পাইলট হাই স্কুল অ্যান্ড কলেজ নামে পরিচিত।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের দফতর প্রধান জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু জানান, এক সপ্তাহ আগে তিনি উত্তরার নিজ বাসায় ব্রেন স্ট্রোক করলে সেখানকার একটি হাসপাতালের সিসিইউতে ভর্তি করা হয়। আজ সকালে তিনি সেখানেই মারা যান। তার স্ত্রী গত চার বছর আগে মারা গেছেন। তিনি এক ছেলে চার মেয়েসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন।

ঐক্যফ্রন্টের দফতর প্রধান আরও জানান, হাসপাতাল থেকে তার মরদেহ চাঁদপুর জেলার হাজীগঞ্জ উপজেলায় নেওয়া হবে। স্থানীয়ভাবে জানাজা শেষে টোরাগড় মুন্সিবাড়ী পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হবে।

আমাদের বাণী ডট কম/২৬ মে ২০২০/সিসিপি