Shadow

নৌকা প্রতীকে মেয়র হতে চান তারেকের ঘনিষ্ঠ সেই রমজান

শেয়ার করুনঃ
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ঢাকাঃ আগামী ২৮ ডিসেম্বর মানিকগঞ্জের পৌর নির্বাচনের ভোট। শুক্রবার (২৭ ডিসেম্বর)   আওয়ামী লীগের নৌকার প্রতিকে মেয়র প্রার্থীদের মনোনয়ন ফরম বিতরণ ও জমাদান শেষ হয়েছে। পৌরসভার এই নির্বাচনে এবারেও মানিকগঞ্জের পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে নৌকার মনোনয়ন ক্রয় করেছেন এক সময়ের তারেকের ঘনিষ্ঠ সহচর ও বিএনপির রাজনীতি থেকে যার উত্থান মানিকগঞ্জের সাবেক মেয়র সেই রমজান আলী।

রাজনীতির শুরুতে তিনি মওলানা ভাষানীর গঠিত ন্যাপ এরপর দেবেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র সংসদ নির্বাচনে ছাত্রদলের হয়ে রমজান আনা পরিষদে নির্বাচন করেন। বিএনপি নেতা ক্যাপ্টেন হালিম চৌধুরীকে তোষামোদ করে বিএনপির রাজনীতিতে যুক্ত ছিলেন দির্ঘদিন। পরবর্তী সময়ে এরশাদের জাতীয় পার্টিতে যোগদান করেন রমজান আলী।

এরপর আবার ২০০১ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত ছিলেন ক্ষমতাসীন দল বিএনপির আপন জন নিয়মিত যাতায়াত ছিল হাওয়া ভবনে। সে সময় তিনি তারেক রহমানের খুব কাছের লোক হিসেবে পরিচিত ছিলেন।

২০০৮ সালে তত্তাবধায়ক সরকারের সময় কালে দূর্নীতির দায়ে কারাগারে আটক ছিলেন। পরবর্তী সময়ে আওয়ামীলীগ সরকার গঠন করলে রমজান মরিয়া হয়ে উঠে আওয়ামী লীগে যোগদান করতে। সে যাত্রায় তিনি সফলতাও লাভ করেন। দলে অনুপ্রবেশকারী রমজান হয়ে যায় জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি।

রমাজন আলী এর আগে বর্তমান স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক স্বপনের পিতা মরহুম অব. কর্ণেল মালেক এর বিরুদ্ধে লাঙ্গল প্রতিকে সংসদ সদস্য নির্বাচনে প্রতিদন্দিতা করেছিলেন। নৌকা প্রতিকে পৌরসভায় পরাজয়ের পরপরেই আবার জেলা পরিষদ নির্বাচনে রমজান আলী বর্তমান জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এ্যাড. গোলাম মহিউদ্দিনের বিরুদ্ধে আনারস মার্কায় করেছেন নির্বাচন  দলীয় সিদ্ধান্তের বাহিরে গিয়ে, তবে সেখানেও তিনি পরাজিত হয়েছেন।

তিনি ২০১৫ সালে অনুষ্ঠিত পৌর নির্বাচনে নৌকা প্রতিকে নির্বাচন করে তিনজন মেয়র প্রার্থীর মধ্যে সর্ব নিম্ন ভোট পেয়ে পরাজিত ছিলেন। সাবেক এই জন প্রতিনিধি তিনবার নির্বাচনের মাধ্যমে জয় লাভ করলেও অবৈধ্য ভাবে নানান কৌশল অবলম্বন করে ৩৫ বছর পৌরসভায় মেয়র হিসেবে অধিষ্ঠিত ছিলেন।

  লন্ডভন্ড চাঁদপুরের বোরচর ও বাহেরচর, আহত-১২

নিম্ন আয়ের কৃষক পরিবার থেকে মেম্বার নির্বাচনের মাধ্যমে জন প্রতিনিধি হিসেবে রাজনীতিতে আগত রমজান এখন শত শত কোটি টাকার অর্থ সম্পদের মালিক। কৃষকের ছেলে রমজান এখন চলেন বিলাশ বহুল প্রাডো গাড়ীতে। নামে বেনামে তৈরি করেছেন শত শত কোটি টাকার সম্পদ।

বিভিন্নি সময়ে জাতীয় গণমাধ্যম গুলোতে ফুটে উঠেছে রমজান আলীর অনিয়ম দূর্নীতির খবর। তালাশ নামের একটি জনপ্রিয় অনুসন্ধানী প্রতিবেদনে “পদক নিবেন পদক” শিরোনামে প্রচারিত অনুষ্ঠানে উঠে এসেছে টাকা দিয়ে বিভিন্ন নামে বেনামের সংস্থার কাছ থেকে রমজান আলীর প্রায় চার হাজারে অধিক ভুয়া পদক ক্রয়ের খবর। জনগণের কাছ থেকে হাতিয়ে নিয়ে শত শত কোটি টাকার মালিক ও মজ্জাগত বিএনপি ও শরীরগত আওয়ামীলীগে নেতা রমজান আলীকে নৌকার প্রার্থী না করতে প্রধানমন্ত্রীর নিকট আবেদন জানিয়েছেন জেলা আওয়ামীলীগের শীর্ষ নেতা থেকে শুরু করে আপামর পৌরবাসী।

শেয়ার করুনঃ
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •