পাঁচ দিন পর শুক্রবার সুন্দরবনে বনের আগুন পুরোপুরি নিভে গেছে বলে দাবি করেছে বন বিভাগ। তবে বন বিভাগ আরও ৩দিন নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখবে বলে জানিয়েছে।

এর আগে আগুন লাগার ৩০ ঘণ্টা চেষ্টার পর মঙ্গলবার বিকেল চারটায় বনে লাগা আগুন নিভে গেছে বলে ঘোষণা দেয় বন বিভাগ ও ফায়ার সার্ভিস। এরপর বুধবার সকাল থেকে বনের কয়েকটি স্থানে আবারও ধোঁয়ার কুণ্ডলী দেখতে পেয়ে ফায়ার সার্ভিসকে সঙ্গে নিয়ে আগুন নেভানোর কাজ শুরু করে বন বিভাগ। বনের যেসব স্থানে নতুন করে ধোঁয়ার কুণ্ডলী দেখতে পাওয়া যায়, সেসব স্থানে তাৎক্ষণিকভাবে সেখানে পানি ছিটিয়ে আগুন নেভানো হয়।

আগুনে বনের ১.৩১ একর বনভূমি পুড়ে যাওয়ার কথা বললেও আগুন লাগার কারণ সম্পর্কে কিছুই এখনো বলেনি বন বিভাগ।

গত সোমবার সকাল এগারোটায় সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের শরণখোলা রেঞ্জের দাসের ভারানি টহল ফাঁড়ি এলাকার ২৪ নম্বর কম্পার্টমেন্টে আগুন লাগে।

সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মোহাম্মদ বেলায়েত হোসেন এই প্রতিবেদককে বলেন, আগুন লাগার পর বন বিভাগ ও ফায়ার সার্ভিস স্থানীয় গ্রামবাসীদের সাথে নিয়ে আগুন নেভানোর কাজ শুরু করে। পরদিন বিকেল চারটা নাগাদ আগুন পুরোপুরি নিভিয়ে ফেলা হয়। বুধবার সকাল থেকে ওই এলাকার বেশ কয়েকটি স্থানে নতুন ধোঁয়ার কুণ্ডলী দেখার পর বনকর্মীরা পানি ছিটিয়ে আগুন নেভায়। পরে বাড়তি সতর্কতা অনুযায়ী ফায়ার সার্ভিসের সহযোগিতা নেয়। বুধ ও বৃহস্পতিবার ফায়ার সার্ভিসকে সাথে নিয়ে টানা দুই দিন বনের বিভিন্ন স্থানে পানি ছিটায়। শুক্রবার সারা দিন নতুন করে কোন ধোঁয়া দেখা যায়নি। তাই আমরা এখন ধরে নিচ্ছি বনের আগুন সম্পূর্ণ নিভে গেছে। তারপরেও আমরা আগামী তিন দিন ওই এলাকা নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখব।

  দেশে করোনা বিষয়ে বাড়ছে উদাসীনতা

তিনি আরও বলেন, আগুন লাগার কারণ অনুসন্ধানে গঠিত তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি তদন্ত শুরু করেছে। আশা করছি ওই কমিটি নির্ধারিত সময়ের মধ্যে তাদের তদন্তকাজ শেষ করে প্রতিবেদন জমা দেবে।