প্রধান শিক্ষকের অবহেলায় ঝরে গেল ১৭ শিক্ষার্থী

নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলার নাজিরপুর ইউনিয়নের পুরুলিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের অবহেলায় এসএসসি পরীক্ষায় ভোকেশনাল শাখার ১৭ শিক্ষার্থী অকৃতকার্য্য হয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছেন শিক্ষার্থীরা।

এ ঘটনায় রোববার দুপুরে পুরুলিয়া স্কুল মাঠ চত্বরে ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক জারজিস ইসলামের বিচারের দাবিতে মানববন্ধন করেছে ছাত্র, অভিভাবক ও এলাকাবাসী। ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধনে অভিযোগ করা হয় গত এসএসসি পরীক্ষায় ব্যবহারিক পরীক্ষার নম্বর না দেওয়ায় সব বিষয়ে পাস মার্ক এলেও ওই বিষয়ে ফেল মার্ক এসেছে।

মানববন্ধনে বক্তারা দাবি করে বলেন, ওই বিদ্যালয় থেকে ভোকেশনাল শাখায় এবার ১৭ শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে। গত ৬ই মে ফলাফল ঘোষণা হওয়ার পর সবাই ফেল করেছে বলে জানতে পায়। খোঁজ নিয়ে জানতে পারে, ব্যবহারিক বিষয়ে নম্বর বোর্ডে জমা না দেওয়ায় তারা সবাই ফেল করেছে।

পরীক্ষার্থী আবুল বাশার, ময়লাল, আবির, মহিদুলসহ অন্যরা অভিযোগ করে বলে, প্রধান শিক্ষক জারজিস ইসলাম ও সহকারী শিক্ষক নুর আলম ইচ্ছা করেই ব্যবহারিক নম্বর বোর্ডে পাঠাননি। যার কারণে তারা সবাই ফেল করেছে। তারা ওই ঘটনার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট শিক্ষকদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন।

  ইবি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গ্রেপ্তার

অপর শিক্ষার্থী নাইম, শাকিল, রাসেল অভিযোগ করে বলে, এ বিষয়ে প্রধান শিক্ষকের কাছে গতকাল জানতে গেলে তার ছেলে শাহিন আলম আমাদের মেরে ফেলার হুমকিও দেন। বর্তমানে আমরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি।

ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জারজিস ইসলাম ব্যবহারিক নম্বর বোর্ডে দেওয়া হয়েছে স্বীকার করে বলেন, ব্যবহারিক নম্বর বোর্ডে প্রথমে ভুলবশত পাঠানো হয়নি। পরবর্তীতে নম্বর দিয়ে পাঠিয়েও রেজাল্ট আসেনি। এ বিষয়ে বোর্ড কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা হয়েছে, আশা করছি রেজাল্ট আসবে।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা হাফিজুর রহমান বলেন, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের দায়িত্বে অবহেলার কারণেই মূলতঃ এ ঘটনা ঘটেছে। বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *