ডেস্ক রিপোর্ট, ঢাকাঃ  আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম বিবিসির চলতি বছর বিশ্বের অনুপ্রেরণামূলক ১০০ নারীর তালিকা প্রকাশ করেছে। করোনা মহামারিকালে যেসব নারী পরিবর্তন ও ভিন্ন ধারার কাজ করেছেন তাদেরকে নিয়ে এই তালিকা করা হয়েছে। এই তালিকায় জায়গা করে নিয়েছেন বাংলাদেশের দুই নারী।

বাংলাদেশি এই নারীদের এক জন হচ্ছেন রিনা আক্তার। করোনাকালে খদ্দেরের অভাবে যৌনকর্মীদের আয়ের পথ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় তাদের খাদ্য জোগাড় করাই মুশকিল ছিল। ওই সময় সাবেক যৌনকর্মী রিনা ও তার দলের সহকারীরা সপ্তাহে চারশ জনকে খাবার সরবরাহ করতেন। তাদের এই খাদ্য তালিকায় ছিল ভাত, সবজি, ডিম ও মাংস।

বিবিসিকে রিনা আক্তার বলেছেন, ‘মানুষ আমাদের পেশাকে নিন্দার চোখে দেখে। কিন্তু খাবার কিনতে আমরা এই কাজ করি। এই পেশাদের নারীরা যেন ক্ষুধার্ত না থাকে এবং তাদের সন্তানদের যেন এই পেশা না আসতে হয় আমি সেই চেষ্টা করছি।’

  এবার জাতীয় পরিচয়পত্র পাবে ১৮ বছরের কম বয়সীরাও

বিবিসির তালিকায় অপর বাংলাদেশি নারী হচ্ছেন রিমা সুলতানা। তিনি কক্সবাজারে ইয়ং উইমেন লিডারস ফর পিসের সদস্য। যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক নারী অধিকার সংগঠন গ্লোবাল নেটওয়ার্ক অব উইমেন পিসবিল্ডার্সের কর্মসূচির অংশ এটি। সংঘাতে ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলোর নারীদের উন্নয়নে কাজ করছে এই সংস্থা।

রোহিঙ্গা শরণার্থীদের মানবিক উন্নয়নে কাজ করছেন রিমা। তিনি রোহিঙ্গা নারী ও শিশুদের জন্য ন্যূনতম শিক্ষা, যেমন- স্বাক্ষরজ্ঞান, সংখ্যাজ্ঞান, নিশ্চিত করতে ক্লাস পরিচালনা করছেন।
রিমা বলেন, ‘আমি বাংলাদেশে লিঙ্গসমতা প্রতিষ্ঠা করতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। আমি অধিকার আদায়ে নারী ও কন্যাশিশুদের ক্ষমতায়নে বিশ্বাসী। আমরা উন্নতি করব।’