Shadow

ভারতে ২৪ ঘন্টায় আক্রান্তের সর্বোচ্চ রেকর্ড ২৪ হাজার

শেয়ার করুনঃ
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ডেস্ক রিপোর্ট, ঢাকা; ভারতে প্রায় প্রতিদিনই করোনা সংক্রমণের রেকর্ড গড়ছে। প্রতিদিনই আগের দিনের চেয়ে বেশি রোগী সংক্রমিত হচ্ছে দেশটিতে। শেষ ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ২৪ হাজারেরও বেশি মানুষ। মৃত্যু হয়েছে ৬১৩ জনের। এযাবৎকালে এই সংক্রমণ সর্বাধিক।

নতুন করে সংক্রমণের জেরে মোট সংক্রমণ পৌঁছেছে ৬ লাখ ৭৩ হাজার ১৬৫ জনে। এর মধ্যে চিকিৎসাধীন রয়েছে ২ লাখ ৪৪ হাজার ৮১৪ জন। মৃত্যু হয়েছে মোট ১৯ হাজার ২৬৮ জনের। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সূত্রে এ খবর জানানো হয়েছে।

এই নিয়ে টানা নয় দিন ভারতে করোনা সংক্রমণ ১৮ হাজারের বেশি হচ্ছে। জুলাই মাসের শুরু থেকেই ব্যাপক হারে ছড়াচ্ছে সংক্রমণ।

ইতোমধ্যেই ভারতে করোনার সর্বোচ্চ সংক্রমণের রেকর্ড মহারাষ্ট্রে। মহারাষ্ট্রে করোনার সংক্রমণ দুই লাখের গন্ডি ছাড়িয়ে গেছে। সংক্রমণের নিরিখে এখন জার্মানিকেও পিছনে ফেলেছে মারাঠাভূম। বেড়ে চলা সংক্রমণে লাগাম পরাতে দিশেহারা উদ্ধব ঠাকরের প্রশাসন।

শনিবার রাত পর্যন্ত মহারাষ্ট্রে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ২ লাখ ৬৪। সর্বোচ্চ সংক্রমণের রেকর্ডের পাশাপাশি একদিনে এখনও পর্যন্ত মহারাষ্ট্রে মৃত্যুরও রেকর্ড হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত হয়ে মহারাষ্ট্রে ২৯৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। সব মিলিয়ে মহারাষ্ট্রে নোভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮ হাজার ৬৭১ জনে।

অন্যদিকে ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধন জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার পর্যন্ত গোটা ভারতে ল্যাবের মাধ্যমে মোট করোনা পরীক্ষার সংখ্যা ৯০ লাখ ৫৬ হাজার ১৭৩। খুব তাড়াতাড়ি এই সংখ্যাটা এক কোটির ঘর ছাড়াবে বলে আশাবাদী কেন্দ্র। এদিন স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন গোটা দেশে ১ হাজার ৫৬টি ল্যাবে করোনা পরীক্ষা হচ্ছে। এর মধ্যে ৭৬৮টি সরকারি ল্যাব ও ২৯৭টি বেসরকারি ল্যাব। করোনা পরীক্ষার সংখ্যা প্রতিদিনই বাড়ছে।

এদিকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) জানিয়েছে, বিশ্বে শনিবার ২৪ ঘণ্টায় দুই লাখ ১২ হাজার ৩২৬ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। যা এই মহামারি ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পর একদিনে সর্বোচ্চ।

  চীনের নতুন চেহারা দেখা গেল লাদাখে

আমেরিকা অঞ্চলে সবচেয়ে বেশি এক লাখ ২৯ হাজার ৭৭২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে জানিয়ে ডব্লিউএইচও বলছে, যুক্তরাষ্ট্র এবং ব্রাজিলেই অর্ধেক শনাক্ত হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রাজিলে যথাক্রমে ৫৩ হাজার ২১৩ এবং ৪৮ হাজার ১০৫ জনের শরীরে এই ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে।

ডব্লিউএইচও বলছে, এর পরেই রয়েছে দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চল। এই অঞ্চলে ২৪ ঘণ্টায় ২৭ হাজার ৯৪৭ জন করোনা শনাক্ত হয়েছে এবং মারা গেছেন ৫৩৪ জন।

জন্স হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের (জেএইচইউ) দেয়া তথ্য অনুযায়ী, রোববার সকাল পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে এক কোটি ১২ লাখ ৩৯ হাজার ৩৭৮ জনে।

এছাড়া করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে পাঁচ লাখ ৩০ হাজার ১১০ জনে। জেএইচইউর তথ্য অনুসারে, করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত দেশের তালিকায় যুক্তরাষ্ট্রের পর দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ব্রাজিল। রোববার পর্যন্ত দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ১৫ লাখ ৭৭ হাজার চারজন এবং মারা গেছেন ৬৪ হাজার ২৬৫ জন।

সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত দেশের তালিকায় তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে রাশিয়া। দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা পৌঁছেছে ছয় লাখ ৭৩ হাজার ৫৬৪ জনে।

আমাদের বাণী ডট কম/০৪ জুলাই  ২০২০/পিপিএম  

সৈয়দপুরের বিজ্ঞাপন

শেয়ার করুনঃ
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •