বাংলাদেশের সঙ্গে স্বরাষ্ট্র সচিব পর্যায়ের বৈঠক স্থগিত করেছে ভারত। ২৯ নভেম্বর ওই বৈঠক হওয়ার কথা ছিল। ডিসেম্বরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বৈঠকের প্রস্তুতি হিসেবে ঢাকায় এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল।

বৈঠকের বিষয়ে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে সব প্রস্তুতিও সম্পন্ন ছিল। কিন্তু কোনো কারণ ব্যাখ্যা না করে বুধবার এক চিঠির মাধ্যমে বৈঠকটি স্থগিত করা হয়। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

আগামী ১৬ অথবা ১৭ ডিসেম্বর দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী পর্যায়ে একটি ভার্চুয়াল বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। ওই বৈঠকে চারটি সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) স্বাক্ষরিত হবে বলে গণমাধ্যমকে জানিয়েছিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন। সমঝোতা স্মারকের বিষয় ঠিক করতে ডিসেম্বরে পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন নয়াদিল্লি সফর করবেন। হাসিনা-মোদি বৈঠকে তিস্তা চুক্তি নিয়ে কিছু থাকছে না বলেও জানিয়েছিলেন মোমেন।

  টিকা নিয়েও ২য় বার করোনায় আক্রান্ত এমপি শাকিল

বৈঠক স্থগিতের বিষয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে দেশ রূপান্তরকে বলেন, ভারতীয় কর্তৃপক্ষ একটি চিঠি দিয়ে বৈঠক স্থগিত করেছে। সেখানে তারা অনিবার্য কারণে বৈঠক স্থগিতের বিষয়ে বলেছে। যদিও আমরা বৈঠকের জন্য সব রকমের প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছিলাম। দুই প্রধানমন্ত্রীর ভার্চুয়াল বৈঠক বিষয়ে আমরা যোগাযোগ রাখছি। এ বিষয়ে এখনো নিশ্চিত করে কিছু বলা যাচ্ছে না।