Shadow

সেপ্টেম্বরেও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার ইঙ্গিত শিক্ষামন্ত্রীর

শেয়ার করুনঃ
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ডেস্ক রিপোর্ট, ঢাকা;  দেশে চলমান করোনা মহামারীর মধ্যে আগামী ৬ আগস্ট পর্যন্ত দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রেছে সরকার। এ পরিস্থিতির উন্নতি না হলে আগামী সেপ্টেম্বরেও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার ইঙ্গিত দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। তিনি বলেছেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার পরিবেশ এখনও তৈরি হয়নি। বিষয়টি নিয়ে আমাদের ভাবতে হবে এবং অবস্থা পর্যবেক্ষেণ করতে হবে। আগামী আগস্ট কিংবা সেপ্টেম্বরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলতে পারবো কিনা, সেটাও এখনও বলা যাচ্ছেনা।

  • আজ শনিবার (২৭ জুন২০২০) ‘করোনায় শিক্ষার চ্যালেঞ্জ এবং উত্তরণে করণীয়’ শীর্ষক একটি ভার্চুয়াল সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। শিক্ষা সাংবাদিকদের সংগঠন এডুকেশন রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন, বাংলাদেশ (ইরাব) এ সেমিনারের আয়োজন করে।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আমরা কোটি কোটি শিক্ষার্থী ও তাদের পরিবারকে ঝুঁকির মধ্যে রেখে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চালু করতে পারিনা। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা রাখলে শিক্ষার্থীদের পরিবারের বয়স্করা সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে থাকবে। তবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রেখে অনলেইনে কিভাবে শিক্ষা কার্যক্রম এগিয়ে নিয়ে যাওয়া যায় সে চেষ্টা করতে হবে।

  • সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন, গণসাক্ষরতা অভিযানের নির্বাহী পরিচালক রাশেদা কে চৌধুরী, ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের ইমেরিটাস অধ্যাপক ড. মনজুর হোসেন এবং ভিকারুননিসা নুন স্কুল এন্ড কলেজ এর সহকারী অধ্যাপক ড. ফারহানা খানম উপস্থিত ছিলেন। সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন ইরাব সভাপতি মুসতাক আহমদ এবং স্বাগত বক্তব্য রাখেন ইরাবের সাধারণ সম্পাদক নিজামুল হক।

সেমিনারে মূলপ্রবন্ধ উপস্থাপনকালে ইরাবের কোষাধ্যক্ষ শরীফুল আলম সুমন বলেন, করোনা-কালে শহরের শিক্ষার্থীরা টিভিতে প্রচারিত ক্লাস ও স্কুলের অনলাইন ক্লাসে যোগদান করে পড়ালেখা চালিয়ে গেলেও গ্রামের শিক্ষার্থীরা পিছিয়ে পড়ছে। সরকারি-বেসরকারি প্রায় সব স্কুলেই মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুম থাকলেও এর ব্যবহার করে অনলাইন ক্লাসের উদ্যোগও দেখা যাচ্ছে না। অনলাইন শিক্ষার জোর দেওয়ার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের সঙ্গে শিক্ষকদের সংযোগ বাড়াতে হবে। শিক্ষা কার্যক্রমের তদারকি আরও বাড়াতে হবে।

  ২৫ শতাংশ ঈদ বোনাসের চেক ব্যাংকে যাবে ৭ মে, শিক্ষকদের দাবি শতভাগ

এদিকে বাংলাদেশের স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এর করোনাভাইরাস সংক্রান্ত নিয়মিত হেলথ বুলেটিনের সর্বশেষ (২৭  জুন ২০২০) তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৩৪ জনের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে মহামারি করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯)। ফলে ভাইরাসটিতে মোট ১৬৯৫  জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে করোনায় আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ৩ হাজার ৫০৪ জন। এতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ১ লাখ ৩৩  হাজার ৯৭৮। আজ নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১৫হাজার ১৫৭ টি যা গতদিনে ছিল ১৮ হাজার ৪৯৮ টি। যা গতদিনের তুলনায় কমে ৩৩৪১ টি নমুনা পরীক্ষা। ৫৮টি ল্যাবে গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১৫ হাজার ৬৯টি আর পরীক্ষা করা হয়েছে পূর্বের মিলে ১৫ হাজার ১৫৭টি। শনাক্তের হার ২৩.১২ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ১৮৫ জন এবং এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৫৪ হাজার ৩৫৮ জন। সুস্থতার হার ৪০.৫৪% এবং মৃত্যুর হার ১.২৭ শতাংশ।

আমাদের বাণী ডট কম/২৭  জুন ২০২০/পিপিএম 

শেয়ার করুনঃ
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •