বস্বস্তাবন্দী লাশ উদ্ধার

ভৈরবে এক শিক্ষার্থীকে ডেকে নিয়ে গলাকেটে হত্যা করেছে সহপাঠীরা।শুক্রবার সকালে পৌর শহরের ভৈরব আইডিয়াল স্কুলের পেছনে ৬তলা ভবনের ছাদ থেকে রুপক নামের এক শিক্ষার্থীর বস্তাবন্দী লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত রুপক নুরে আলম বিপ্লবের ছেলে।

হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে রূপকের তিন সহপাঠীকে আটক করেছে পুলিশ। আটককৃতরা হলেন, রেজাউল কবির খান, আরাফাত পাটুয়ারী ও ফজলে রাব্বি।

পরিবার সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতবিার রাতে রুপকের এক বন্ধু তাকে ফোনে ডেকে নিয়ে যায়। পরে গভীর রাতেও রুপক বাসায় ফিরলে তাদের সন্দেহের সৃষ্টি হয়। পরে তারা এবিষয়ে থানায় সাধারণ ডায়রী করেন।

  কুষ্টিয়ায় গৃহবধুকে গণধর্ষণ করে হত্যার অভিযোগ

পুলিশ জানায়, প্রাথমিক তদন্তে মুক্তিপণের উদ্দেশ্যে রূপককে অপহরণ করে তার তিন সহপাঠী। পরে তাদের অপরাধের বিষয়টি ধরা পড়ে যাবার ভয়ে রুপককে জবাই করে হত্যার পর লাশ বস্তাবন্দী করে গুম করার চেষ্টা করে। খবর পেয়ে পুলিশ শুক্রবার সকালে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য কিশোরগঞ্জ সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

ভৈরব থানার ওসি (তদন্ত) বাহালুল আলম বাহার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে ৩জনকে আটক করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *