ডেস্ক রিপোর্ট, ঢাকাঃ  স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, স্বাস্থ্যখাতকে গুরুত্ব না দেয়ার ফলাফল আমরা করোনায় পেয়েছি। এ সময় তিনি বলেন, শুধু আমরাই নই, পৃথিবীর কোনো দেশই স্বাস্থ্যখাতকে গুরুত্ব দেয়নি। খবর ইউএনবির।

বৃহস্পতিবার বিএসএমএমইউতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৪তম বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘আমরা স্বাস্থ্যখাতকে গুরুত্ব দেইনি, অবহেলা করেছি। যার ফলাফল আমরা করোনায় পেয়েছি। করোনা মহামারীতে আমরা কতটা অসহায়, সেটা দেখেছি। শুধু আমরাই নই, পৃথিবীর কোনো দেশই স্বাস্থ্যখাতকে গুরুত্ব দেয়নি।’

জাহিদ মালেক বলেন, করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের কারণ সম্পর্কে আমরা সচেতন না হলে সামনে আবারো করোনার তৃতীয় ঢেউ চলে এলে অবস্থা আরো ভয়াবহ হয়ে দেখা দিতে পারে। করোনার প্রথম ঢেউ বাংলাদেশ যথেষ্ট দক্ষতার সাথে সামলে নিলেও, স্বাস্থ্যখাতে অবহেলার ফল আমরা পেয়েছি।

মন্ত্রী বলেন, ফেব্রুয়ারিতে যখন করোনায় মৃত্যু ৩-৪ জনে নেমেছিল তখন মানুষ ভেবেছিল করোনা দেশ থেকে চলে গেছে। স্বাস্থ্যবিধি মানতে মানুষ অনিহা দেখাচ্ছিল। পর্যটন কেন্দ্রগুলোতে ২৫ থেকে ৩০ লাখ মানুষ স্বাস্থ্যবিধি না মেনেই ভ্রমণ করেছে। অধিক হারে সামাজিক অনুষ্ঠান করা হয়েছে। এসব কারণেই করোনার দ্বিতীয় ঢেউ চলছে। দিনে প্রায় শত মানুষের মৃত্যু হচ্ছে।

  ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর ফুসফুসে তিন ধরনের জীবাণু

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, করোনা আমাদেরকে দেখিয়েছে স্বাস্থ্যসেবার যদি বিপর্যয় ঘটে তাহলে মানুষের কি অবস্থা হয়। দেশের সব উন্নয়ন থেমে যায়, দেশে শান্তি থাকে না, সামাজিক অশান্তি সৃষ্টি হয়।

মন্ত্রী বলেন, আমরা শুরুতে খুব ভালোভাবেই টিকা কার্যক্রম শুরু করেছিলাম, কিন্তু মাঝপথে ভারত টিকা বন্ধ করে দেয়ায় আমাদের থেমে যেতে হয়েছে। আপনারা জানেন আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করে যাচ্ছি, তবুও বিকল্প হিসেবে আমরা রাশিয়ার টিকা অনুমোদন দিয়েছি যেন আমাদের সেই টিকা কার্যক্রমকে আরো বেগবান করতে পারি।

‘এছাড়াও কেউ যদি দেশে টিকা বানাতে চায়, সে সুযোগ আমরা দিচ্ছি। আমরা বলেছি, যে কেউ টিকা বানালে আমরা তাদেরকে সর্বোচ্চ সহযোগিতা করব। আমাদের দেশে কয়েকটি ফ্যাক্টরি রয়েছে, যেখানে তারা টিকা তৈরি করতে পারে। আমরা চাই তারা টিকা বানিয়ে আমাদের দেশের মানুষকেও দিক এবং দেশের বাইরেও রফতানি করুক,’ বলেন তিনি।

বিএসএমএমইউ ভিসি অধ্যাপক ডা: মো: শারফুদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন শিক্ষামন্ত্রী ডা: দীপু মনি।

আমাদেরবাণী/মৃধা