হাতীবান্ধা থানা

মাসুদ বাবু , লালমনিরহাট জেলা সংবাদদাতা; জেলার  হাতীবান্ধায় পুলিশ সেজে ধানের বীজ ও টাকা ছিনতাইয়ের অভিযোগ উঠেছে দেলোয়ার হোসেন ও হাফিজুল ইসলাম নামে দুই ব্যক্তির বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ করেছেন শাহাদাত হোসেন নামে এক ব্যবসায়ী।

অভিযুক্ত দেলোয়ার হোসেন হাতীবান্ধা উপজেলার পশ্চিম বেজগ্রাম এলাকার মৃত জালাল উদ্দিনের ছেলে ও হাফিজুল ইসলাম একই এলাকার সাবেক ইউপি সদস্য খলিলুর রহমানের ছেলে।

অন্যদিকে ব্যবসায়ী শাহাদাত হোসেন লালমনিরহাট সদর উপজেলার মুক্তিযোদ্ধা তোফাজ্জ্বল হোসেনের ছেলে বলে জানা গেছে।হাতীবান্ধা থানায় দাখিলকৃত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ব্যবসায়ী শাহাদাত হোসেনের লালমনিরহাট সদরে কৃষিঘর নামে একটি কৃষিপণ্যের দোকান রয়েছে। গত শনিবার (২৩ মে) নীলফামারী জেলার সৈয়দপুর থেকে বিভিন্ন ধানের বীজ ক্রয় করে লালমনিরহাট ফেরার পথে হাতীবান্ধা উপজেলার সানিয়াজান এলাকায় তাকে গতিরোধ করে পুলিশ কর্মকর্তা সেজে কয়েকজন ব্যক্তি। দেলোয়ার হোসেনসহ কয়েকজন পিকআপ তল্লাশির কথা বলে ব্যবসায়ী শাহাদাত হোসেনকে অন্য স্থানে নিয়ে যায় তারা।

  ঝিনাইদহে “আনসার আল ইসলাম’র দুই সদস্য গ্রেফতার

এ সময় ওই ব্যবসায়ীর কাছ থেকে নগদ ৮ হাজার ৫শ’ ও বিকাশে ১৮ হাজার টাকা জোরপূর্বক আদায় করে। গাড়ি থেকে দেড় লক্ষ টাকার ধান বীজও নামিয়ে নেয় বলে অভিযোগ ব্যবসায়ী শাহাদাতের। পুরো পরিকল্পনার কাজে একটি প্রাইভেটকার ব্যবহার করা হয়।

অপর একটি সূত্র দাবি করেন, ওই প্রাইভেটকারে বসে ছিলেন বড়খাতা এলাকার সাবেক এক ছাত্রদল নেতা।এ বিষয়ে কথা হলে দেলোয়ার হোসেন ও হাফিজুল ইসলাম জানান, ওই ছিনতাইয়ের ঘটনার সাথে তারা জড়িত নন। এ ঘটনা সম্পর্কে তারা কিছুই জানেন না। ষড়যন্ত্র করে তাদের বিরুদ্ধে থানায় মিথ্যা অভিযোগ করা হয়েছে।

তবে ব্যবসায়ী শাহাদাত হোসেন বলেন, দেলোয়ারসহ কয়েকজন আমার বীজ ও টাকা ছিনতাই করেছেন। বিচার চেয়ে থানায় অভিযোগ করেছি।

হাতীবান্ধা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)  ওমর ফারুক বলেন, পুলিশ সেজে ছিনতাইয়ের ঘটনায় একটি অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আমাদের বাণী ডট কম/২৭  মে ২০২০/সিসিপি