রিকশায় চড়িয়ে ঘুরালেন

সহায়-সম্বলহীন অসহায় এক বাবাকে যাত্রীর আসনে বসিয়ে রিকশা চালিয়েছেন ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী। তার এই রিকশা চালানোর ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

৭০ বছর বয়সী অসহায় ওই বাবার নাম মোহাম্মাদ জামিলুর রহমান। তার একটি পা অচল। সন্তানদের কেউই তার খোঁজ খবর নেয় না। দুই মেয়েকে বিয়ে দিতে গিয়ে দেড় লাখ টাকার ঋণগ্রস্ত হয়ে পড়েন তিনি। বৃদ্ধ বয়সে ঋণ শোধ করার কোনো উপায় না পেয়ে ঢাকায় এসে এক পায়ে রিকশা চালানোর কাজ শুরু করেন তিনি। কিন্তু তার নিজের কোনো রিকশা না থাকায় ভাড়ার রিকশা চালাতে হতো তাকে।

দিনশেষে যা আয় হতো তা রিকশার মালিককে পরিশোধ করার পর নিজের জন্য আর খুব বেশি কিছু অবশিষ্ট থাকতো না তার। নিজের এই দুরবস্থার কথা সম্প্রতি বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীকে জানান এই অসহায় বাবা। সব জানার পর সংগঠনের পক্ষ থেকে তাকে একটি রিকশা কিনে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন গোলাম রাব্বানী।

  বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে ছাত্র ফ্রন্ট-এর শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ

এরপরই ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা সবাই মিলে জামিলুরের জন্য টাকা সংগ্রহ করতে শুরু করে। গত বৃহস্পতিবার দুপুরে পরীবাগ এলাকায় ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে একটি ডিজিটাল রিকশা তুলে দেওয়া হয় জামিলুর রহমানের হাতে। রিকশাটি হস্তান্তর করার পর জামিলুর রহমানকে রিকশায় বসিয়ে কিছুদূর সেটি চালিয়ে নিয়ে যান ছাত্রলীগ সম্পাদক।

এ সময় জামিলুর রহমান গোলাম রাব্বানীকে জড়িয়ে ধরে কেঁদে ফেলেন। এ ঘটনার বেশ কিছু ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ করা হয়েছে। প্রকাশের পরপরই সেগুলো ভাইরাল হয়ে গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *