120410

নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনসহ ধর্ষণ ও নারী নিপীড়নের প্রতিবাদে গতকালের মতো আজ দ্বিতীয় দিনেও রাজপথে নেমেছে আন্দোলনকারীরা। রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ করছে।

রাজধানীর শাহবাগে জড়ো হয়েছে ধর্ষণবিরোধী আন্দোলনকারীরা। মঙ্গলবার (০৬ অক্টোবর) বেলা ১১টা থেকে ‘ধর্ষণের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ’ ব্যানারে তাদের গণজমায়েত হওয়ার কথা ছিল, কিন্তু বৃষ্টির কারণে কিছুটা দেরি হয়েছে।

বৃষ্টি উপেক্ষা করে ‘আমার সোনার বাংলায়, ধর্ষকদের ঠাঁই নাই’, ‘ধর্ষকদের আস্তানা ভেঙে দাও, গুঁড়িয়ে দাও’, ‘মানুষ তুমি চুপ কেন?’ এমন নানা স্লোগান দিচ্ছেন তারা।

ছাত্র ইউনিয়নের ঢাকা মহানগর শাখার সভাপতি জহর লাল রায় বলেন, আমরা কিছুক্ষণের মধ্যেই জমায়েত শুরু করে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অভিমুখে যাত্রা শুরু করব।

সোমবার (০৫ অক্টোবর) সকাল থেকেই নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে এক নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনসহ সাম্প্রতিক সময়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে সংঘটিত ধর্ষণের ঘটনার প্রতিবাদে শাহবাগে মোড়ে অবস্থান নিতে শুরু করে ছাত্র ইউনিয়নের কর্মীসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ।

  'সাধারণ ছুটি আরও দুই সপ্তাহ বাড়ানোর প্রস্তাব'

সেখান থেকেই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দেওয়া ‘পৃথিবীর সব জায়গায় ধর্ষণ হয়’ বক্তব্যের তীব্র প্রতিবাদ জানান তারা। এর পাশাপাশি দ্রুততম সময়ে ধর্ষকদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তিরও দাবি জানান।

এরপর সন্ধ্যায় তারা মঙ্গলবার আবার গণজমায়েত হওয়া ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অভিমুখে কালো পতাকা মিছিলের কর্মসূচি দেন।

এর আগে গতকাল বেলা ১১টার দিকে শাহবাগে দেখা গেছে, নোয়াখালীর ঘটনাসহ সারাদেশে সংঘটিত ধর্ষণ-নিপীড়নের ঘটনায় বিচারের দাবিতে শাহবাগ মোড় অবরোধ করেছে সম্মিলিত ছাত্র-জনতা।

আমাদের বাণী ডট কম/৬ অক্টোবর ২০২০/পিপিএম