অন্তঃসত্ত্বা নারী ইউপি সদস্যকে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে ধর্ষণ করলো চাচাতো ভাই!

বাবার সাথে গ্রামের বাড়িতে গিয়েছিলো ঈদ করতে। আর সেখানেই ধর্ষকের কবলে পড়ে শিশু শিক্ষার্থী। শেরপুরের শ্রীবরদীতে এ ঘটনা ঘটেছে। শিশুকে (১২) ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে এক ব্যক্তিকে আটক করেছে পুলিশ। বুধবার বিকেলে উপজেলার একটি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। শিশুটি ঈদ করতে সম্প্রতি ঢাকা থেকে তার বাবার সঙ্গে গ্রামের বাড়িতে আসে।

অভিযুক্ত ব্যক্তির নাম আকরাম (৪০)। পেশায় তিনি নরসুন্দর। চিকিৎসক বলছেন, প্রাথমিক পরীক্ষায় তারা ধর্ষণচেষ্টার প্রমাণ পেয়েছেন। শিশুটির বাবা পেশায় রিকশাচালক। তিনি সপরিবারে ঢাকায় থাকেন। শিশুটি ঢাকার একটি বিদ্যালয়ে চতুর্থ শ্রেণিতে পড়ে।

  ঠাকুরগাঁওয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতে মাদকসেবীর কারাদণ্ড

পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন সূত্রে জানা গেছে, বেলা আড়াইটার দিকে প্রতিবেশী আকরাম ওই শিশুকে একটি পরিত্যক্ত ঘরে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করেন। এ সময় তার চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন এসে আকরামকে আটক করে পুলিশে দেয়।

শ্রীবরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসা কর্মকর্তা মো. ইফতেখার রেজা বলেন, প্রাথমিক পরীক্ষায় তারা শিশুটিকে ধর্ষণচেষ্টার প্রমাণ পেয়েছেন। তবে স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ দ্বারা অধিকতর পরীক্ষার জন্য তাকে জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

শ্রীবরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ রুহুল আমিন তালুকদার বলেন, এই ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *