‘সি’ ক্যাটাগরির ২৬টি কলেজে একাদশে কেউ ভর্তি হয়নি

একাদশ শ্রেণির ভর্তিতে প্রথম দফায় করা আবেদনের ফল প্রকাশিত হয়েছে। রোববার রাত থেকেই শিক্ষাবোর্ডের ওয়েবসাইট ও এসএমএসের মাধ্যমে রোল নম্বর ও রেজিস্ট্রেশন নম্বর দিয়ে ফল দেখতে পাচ্ছেন ভর্তিচ্ছুরা। এ ধাপে মনোনয়নপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের ১১ জুন থেকে ১৮ জুনের মধ্যে ভর্তি নিশ্চিত করতে হবে।

বোর্ডের কলেজ শাখা সূত্র জানায়, এই প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে টেলিটক বা মোবাইল ব্যাংকিং রকেট ও শিওর ক্যাশের মাধ্যমে বোর্ডের রেজিস্ট্রেশন বাবদ ১৯৫ টাকা ফি পরিশোধ করতে হবে। এই প্রক্রিয়ায় ভর্তি নিশ্চিত করতে না পারলে মনোনয়ন ও আবেদন বাতিল হয়ে যাবে।

এ প্রসঙ্গে ঢাকা বোর্ডের কলেজ পরিদর্শক অধ্যাপক ড. হারুন অর রশিদ বলেন, রাত ১২টায় দেয়ার কথা থাকলেও এর কয়েক ঘন্টা আগে থেকেই ফল পেতে শুরু করে শিক্ষার্থীরা। আর ১২টার পর থেকে সবাই ফল দেখতে পাচ্ছেন। কারো মোবাইলে এসএমএস না গিয়ে থাকলে ওয়েব সাইটে গিয়ে ফল দেখতে পারবেন। মনোনয়নপ্রাপ্ত সব শিক্ষার্থীকে ১৮ জুনের মধ্যে ভর্তি নিশ্চিত করতে হবে।

এদিকে যেসব শিক্ষার্থী প্রথম ধাপে আবেদন করেনি বা ভর্তি নিশ্চায়ন করবে না তারা (দ্বিতীয় পর্যায়ে) ১৯ ও ২০ জুন আবেদন করতে পারবেন। দ্বিতীয় পর্যায়ের আবেদনকারীদের মনোনয়ন দেয়ার পূর্বে প্রথম পর্যায়ে মনোনয়ন নিশ্চায়নকারীদের অটো মাইগ্রেশন হবে। অর্থাৎ প্রথম পর্যায়ে যারা নিশ্চায়ন করেছে তাদের মেধা ও পছন্দক্রমের ভিত্তিতে যদি উপরের কলেজে আসন শূন্য থাকে তাহলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে (অটো) মাইগ্রেশন হবে।

  প্রশ্নফাঁসে জড়িত ও বিবাহিত ইডেনের নেত্রী অনু ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক

এ সম্পর্কে চট্টগ্রাম মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের কলেজ পরিদর্শক অধ্যাপক মো. জাহেদুল হক বলেন, মনোনয়ন নিশ্চায়নের ক্ষেত্রে পাশের সাল ও রোল নম্বর যাতে ভুল না হয়, সে দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। দ্বিতীয় পর্যায়ের আবেদনকারীদের মনোনয়ন দেয়ার পূর্বে প্রথম পর্যায়ে মনোনয়ন নিশ্চায়নকারীদের অটো মাইগ্রেশন হবে। মাইগ্রেশন হওয়া কলেজ শিক্ষার্থীদের জন্য চূড়ান্ত কলেজ বলে বিবেচিত হবে।

গত ২৩ মে শেষ দিন পর্যন্ত ৯টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ড ও একটি মাদরাসা বোর্ডের অধীন কলেজগুলোতে ভর্তির জন্য মোট আবেদন করেন প্রায় ১৪ লাখ ভর্তিচ্ছু। এদের মধ্যে অনলাইনে আবেদন করে ১০ লাখ ৩৯ হাজারের বেশি এবং এসএমএসের মাধ্যমে ৩ লাখ ৬৫ হাজারের বেশি ভর্তিচ্ছু। শুধু ঢাকা বোর্ডেই ৩ লাখ ৯৫ হাজারের বেশি ভর্তিচ্ছুক একাদশে ভর্তির আবেদন করেছেন।

উল্লেখ্য, আগামী ২১ জুন রাত ৮টার পর ২য় পর্যায়ে নির্বাচিতদের ফল প্রকাশ করা হবে। ২২ ও ২৩ জুন ২য় পর্যায়ের মনোনয়ন নিশ্চিত করতে হবে। এরপর ২৪ জুন রাত ৮টার পর থেকে ৩য় পর্যায়ের আবেদন গ্রহণ করা হবে। ২৫ জুন রাত ৮টার পর ৩য় পর্যায়ের আবেদনের ফল প্রকাশ করা হবে। ২৭ থেকে ৩০ জুন ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হবে। ১ জুলাই থেকে একাদশ শ্রেণিতে ক্লাস শুরু হবে। উল্লেখ্য, এ বছর মোট এসএসসি উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীর সংখ্যা ১৭ লাখ ৪৯ হাজার ১৬৫ জন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *