একাদশে ১ম পর্যায়ে কলেজ পায়নি ৯৭ হাজার শিক্ষার্থী

১৪ লাখ ১৫ হাজার ৮৭৬ জন আবেদন করলেও প্রথম দফায় একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির জন্য কলেজ পায়নি ৯৭ হাজার ১০ জন শিক্ষার্থী। সোমবার প্রকাশিত তালিকায় ভর্তির জন্য মনোনীত হয়েছে ১৩ লাখ ১৮ হাজার ৮৬৬ জন। মনোনীতদের ২৭ থেকে ৩০ জুনের মধ্যে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি হতে হবে। যারা প্রথম পর্যায়ে মনোনীত হয়নি তারা আবারো আবেদন করতে পারবে।

কলেজে ভর্তির ওয়েবসাইটে (http://www.xiclassadmission.gov.bd/) তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে বলে জানান ঢাকা বোর্ডের কলেজ পরিদর্শক অধ্যাপক মো. হারুন-আর-রশিদ। এই কর্মকর্তার আশা, যারা উত্তীর্ণ হয়েছে তারা সবাই এইচএসসিতে ভর্তির সুযোগ পাবে।

এবারও সর্বনিম্ন পাঁচটি এবং সর্বোচ্চ ১০টি কলেজে আবেদন করার সুযোগ পেয়েছে শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীর মেধা ও পছন্দক্রমের ভিত্তিতে একটি কলেজে তার অবস্থান নির্ধারণ করে দেওয়া হচ্ছে।

হারুন-অর-রশিদ বলেন, প্রথম পর্যায়ে ভর্তির জন্য ১৩ লাখ ১৮ হাজার ৮৬৬ জনকে মনোনীত করা হয়েছে। এদের ১৮ জুনের মধ্যে সিলেকশন নিশ্চয়ন (যে কলেজের তালিকায় নাম এসেছে ওই কলেজেই যে শিক্ষার্থী ভর্তি হবেন তা এসএমএসের মাধ্যমে নিশ্চিত করা) করতে হবে।

  মেধাবী শিক্ষার্থী না পাওয়ায় ৪ মাস আটকে আছে জেএসসির বৃত্তি

ভর্তির জন্য মনোনীত শিক্ষার্থীরা রোল এবং রেজিস্ট্রেশন নম্বর দিয়ে ওয়েবসাইট থেকে ফল জানতে পারবে। এছাড়া তাদের মোবাইলে এসএমএস করেও ফল জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

অধ্যাপক হারুন জানান, একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি হতে প্রথম পর্যায়ে ১৪ লাখ ১৫ হাজার ৮৭৬ জন আবেদন করলেও তাদের মধ্যে ৯৭ হাজার ১০ জন ভর্তির জন্য কলেজ পাননি।

এই কর্মকর্তা বলেন, অনেকে এসএমএসের মাধ্যমে শুধু একটি কলেজে আবেদন করেছিল। কেউ কেউ ভালো ভালো কলেজে আবেদন করায় প্রথম পর্যায়ে তারা কলেজ পায়নি।

এই কর্মকর্তা আরও বলেন, প্রথম দফায় যারা কলেজ পায়নি, তারা দ্বিতীয় দফায় আবেদনের সুযোগ পাবেন। আশা করি মাধ্যমিকে উত্তীর্ণ সব শিক্ষার্থীই ভর্তির জন্য কলেজ পাবে, সব শিক্ষার্থীই কলেজে ভর্তি হতে পারবে।

আগামী ১৯ থেকে ২০ জুন দ্বিতীয় পর্যায় এবং ২৪ জুন তৃতীয় পর্যায়ে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে আবেদন নিয়ে ২১ জুন দ্বিতীয় পর্যায় এবং ২৫ জুন তৃতীয় পর্যায়ের ফল প্রকাশ করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *