ফখরুল

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আমরা এই সংসদকে স্বীকৃতি দিই না। এটা অবৈধ সংসদ। কারণ এ সংসদের সদস্যরা জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়নি। এটা জনগণের সংসদ নয় বরং আওয়ামী লীগের সংসদ।

রোববার সন্ধ্যায় ঠাকুরগাঁও জেলার সদর উপজেলার রুহিয়া থানা বিএনপির এক কর্মী সভায় তিনি এ কথা বলেন। মির্জা ফখরুল বলেন, এ সরকার নির্বাচনের নামে ভোট ডাকাতি করেছে। আপনার আমার সবার অধিকারগুলোকে কেড়ে নিয়েছে। নির্বাচনের আগের রাতে বাক্স ভরে ও সকালে কেন্দ্রে না ঢুকতে দিয়ে নির্বাচন করা হয়েছে।

তিনি বলেন, আমরা একটি গণতান্ত্রিক দল। আমরা বন্দুক, পিস্তল নিয়ে দাঁড়াই না। আমরা জনগণকে সঙ্গে নিয়ে আছি। জনগণকে সঙ্গে নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে। জনগণের শক্তির কাছে কোনো শক্তি টিকতে পারে না।

মির্জা ফখরুল আরো বলেন, ধানের দাম নাই কারণ সরকারের এদিকে খেয়াল নেই। সরকার ইচ্ছে করে জনগণের কাছ থেকে ধান কিনতে পারত। ১৯৭৮ সালে জিয়াউর রহমান সরকার গ্রাম সরকারের মাধ্যমে সাধারণ কৃষকদের কাছ থেকে ধান কিনেছিলেন। ১৯৭৪ সালে আওয়ামী লীগের দুঃশাসন আর দুর্নীতির কারণে দেশে দুর্ভিক্ষ হয়েছিল।

  সারাদেশে কৃষকের ধান কাটতে সহায়তা করবে বাসদ

সাধারণ মানুষ না খেয়ে মারা যাচ্ছিল। সেই অর্থনীতিকে জিয়াউর রহমান টেনে উপরের দিকে তুলেছিলেন এবং দেশকে সম্ভাবনার দ্বারপ্রান্তে নিয়ে গিয়েছিলেন।
বিএনপির মহাসচিব বলেন, আজকে কেন এই অবস্থা? এই সরকার কৃষকদের কথা ভাবে না, জনগণের কথা ভাবে না। সরকার শুধু ভাবে- কী করে নিজেদের পকেট ভারী করা যায়।

রুহিয়া থানা বিএনপির আহ্বায়ক আনছারুল হকের সভাপতিত্বে সভায় উপস্থিত ছিলেন- জেলা বিএনপির সভাপতি তৈমুর রহমান, ঠাকুরগাঁও পৌরসভার মেয়র মির্জা ফয়সাল আমিন, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তফা কামাল, রুহিয়া ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মালেক মানিক প্রমুখ ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *