রাজবাড়ী-২ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আ’লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মো: জিল্লুল হাকিমের বিরুদ্ধে রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলা পরিষদের নির্বাচনী এলাকায় নির্বাচনের আচরণবিধি লঙ্ঘন করায় এলাকা ত্যাগের নির্দেশ দেন নির্বাচন কমিশন।

তারই প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার (২১ মার্চ) বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের একটি প্যাডে বেলা ৩ টায় এমপি জিল্লুল হাকিম একটি লিখিত জবাব দিয়েছেন বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের সচিব বরাবর।

এলাকা ছাড়ার নির্দেশের জবাব দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন এমপি জিল্লুল হাকিম। এ সময় তিনি জানান, দীর্ঘ দিন তিনি অসুস্থতার কারণে সিঙ্গাপুরে চিকিৎসাধীন ছিলেন। গত ১৭ মার্চ জাতির জনকের ৯৯ তম জন্মবার্ষিকী পালনের জন্য পাংশা ও বালিয়াকান্দিতে ২টি দলীয় আলোচনা সভায় অংশগ্রহণ করেন এবং কেক কাটেন। সেখানে তিনি প্রকাশ্যে নৌকা প্রতীকের পক্ষে ভোট চাননি এমনকি তিনি সরাসরি কোন নির্বাচনী প্রচারণায়ও অংশ নিচ্ছেন না।

  প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া ঘরেই যেন সুখ পেলো প্রতিবন্ধী চায়না!

এলাকা ছাড়ার নির্দেশ প্রদানের সিদ্ধান্তটি বিবেচনা করার জন্য তিনি নির্বাচন কমিশনের সচিবকে অনুরোধ করে তিনি জানান, যেহেতু বর্তমান সংসদ অধিবেশন বন্ধ রয়েছে এবং আগামী ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসের দলীয় বিভিন্ন কর্মসূচি রয়েছে। রাজবাড়ী জেলা আ’লীগের সভাপতি হিসাবে তার উপর কিছু দায়িত্ব রয়েছে। সেগুলো সঠিকভাবে তদারকির জন্য তার এলাকায় থাকাটা খুবই জরুরি।

উল্লেখ্য, গত ১৯ মার্চ নির্বাচন কমিশনের উপ সচিব মো: আতিয়ার রহমান স্বাক্ষরিত একটি পত্রে এমপি জিল্লুল হাকিমকে ২০ মার্চের মধ্যে এলাকা ত্যাগের নির্দেশ প্রদান করেন। তারই প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার (২১ মার্চ) তিনি এর ব্যাখ্যা প্রদান করেন।

আমাদের বাণী-আ.আ.হ/মৃধা

[wpdevart_like_box profile_id=”https://www.facebook.com/amaderbanicom-284130558933259/” connections=”show” width=”300″ height=”550″ header=”small” cover_photo=”show” locale=”en_US”]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *