স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ

পিরোজপুরের নাজিরপুরে সপ্তম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত শনিবার রাতে উপজেলার মালিখালী ইউনিয়নের পশ্চিম যুগিয়া গ্রামের তারা কান্ত রায়ের মাছের ঘেরে এ ঘটনা ঘটে। ধর্ষণে সহায়তার অভিযোগে গৌতম শিকারী (২০) নামে এক তরুণকে রোববার দুপুরে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃত গৌতম শিকারী উপজেলার মালিখালী ইউনিয়নের পশ্চিম যুগিয়া গ্রামের গৌর শিকারী ছেলে।

নাজিরপুর থানার ওসি (তদন্ত) মো. জাকারিয়া বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ধর্ষণে সহায়তাকারীকে গ্রেপ্তার করা সম্ভব হলেও ধর্ষক এখনো পলাতক রয়েছে। তাকে গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশি তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে। এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর বাবার লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে একটি মামলা রুজুর প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

ওই ছাত্রীর বাবা জানান, তিনিসহ তার স্ত্রী ঢাকায় থেকে গার্মেন্টসে চাকরি করে। তার মেয়ে উপজেলার গ্রামের বাড়িতে দাদা-দাদীর কাছে থেকে স্থানীয় একটি স্কুলে সপ্তম শ্রেণিতে লেখাপড়া করে। গত শনিবার রাত ১০টার দিকে একই গ্রামের গৌর শিকারীর ছেলে গৌতম শিকারী ও রবিন শিকারীর ছেলে রমেন শিকারী ওই ছাত্রীকে বাসা থেকে ডেকে পার্শ্ববর্তী তারা কান্ত রায়ের মাছের ঘেরে নিয়ে যায়। সেখানে রমেন শিকারী ওই ছাত্রীকে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে। এক পর্যায়ে মেয়েটি অজ্ঞান হয়ে পড়লে তারা পালিয়ে যায়। এদিকে ওই ছাত্রীকে ঘরে না পেয়ে তার দাদা-দাদী স্থানীয়দের সহায়তায় খোঁজাখুঁজি করে রাত ১২টার দিকে মেয়েটি ওই ঘের থেকে উদ্ধার করেন।

  মতলব উত্তরে উপজেলা প্রশাসনের ন্যায্য মূল্যে ধান ক্রয়

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *