Shadow

ঘুষ নেয়ার সময় হাতেনাতে ধরা দুই প্রকৌশলী

শেয়ার করুনঃ
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

দিনাজপুরে ঘুষ গ্রহণের সময় ৬০ হাজার টাকাসহ দুই প্রকৌশলীকে গ্রেপ্তার করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। তারা হলেন জাতীয় গৃহায়ণ কর্তৃপক্ষ দিনাজপুর ডিভিশনের নির্বাহী প্রকৌশলী মুহাম্মদ দেলোয়ার হোসাইন এবং উপসহকারী প্রকৌশলী আব্দুল ওয়াদুদ।

রোববার (২৮ জুলাই) রাত সাড়ে আটটার দিকে বাড়ি বরাদ্দের জন্য আবেদনকারীর কাছ থেকে ঘুষ গ্রহণের সময় নিজ কার্যালয় থেকে দেলোয়ারকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে পালিয়ে যাওয়া উপসহকারী প্রকৌশলী আব্দুল ওয়াদুদকেও গ্রেপ্তার করা হয়।

দুদক দিনাজপুর সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক আবু হেনা আশিকুর রহমান জানান, ঢাকাস্থ সেগুনবাগিচার জাতীয় গৃহায়ণ কর্তৃপক্ষের ৬৩ তম ভূমি বরাদ্দের সভায় দিনাজপুর উপশহরের বাড়ি নং ই/৬ বাড়িটি বরাদ্দ দেয়া হয় নাজমাতুন নাহারকে। অথচ দিনাজপুর গৃহায়ণ কর্তৃপক্ষের নির্বাহী প্রকৌশলী দেলোয়ার হোসেন ও উপসহকারী প্রকৌশলী আব্দুল ওয়াদুদ বাড়িটি বরাদ্দের জন্য ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা দাবি করে আসছিলেন। এজন্য নাজমাতুন নাহারকে দেড় বছর থেকে হয়রানি করছিলেন তারা।

ভুক্তভোগী তাদেরকে বারবার অনুরোধ করলেও নির্বাহী প্রকৌশলী দেলোয়ার ও উপ-সহকারী প্রকৌশলী আব্দুল ওয়াদুদ বরাদ্দ প্রদানের জন্য দেড় লাখ টাকা দাবি করেন।

  মাত্র ২লক্ষ টাকা বাঁচাতে রিজাউলের জীবন

অভিযোগকারী নাজমাতুন নাহার দুদকের শরণাপন্ন হলে দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের সদস্যরা একটি এনফোর্সমেন্ট টিম গঠন করেন। ওই টিম রবিবার সন্ধ্যা থেকেই গৃহায়ণ কর্তৃপক্ষ দিনাজপুর ডিভিশনে ওঁৎ পেতে থাকে। রাতে ওই আবেদনকারীর কাছ থেকে ৬০ হাজার টাকা ঘুষ গ্রহণের সময় দেলোয়ারকে হাতেনাতে গ্রেপ্তার করা হয়। ওই সময় উপ-সহকারী প্রকৌশলী আব্দুল ওয়াদুদ পালিয়ে যান। পরে তাকেও গ্রেপ্তার করা হয়।

এ ব্যাপারে দুদকের সহকারী উপ-পরিচালক আসানুল কবির পলাশ বাদী হয়ে কোতয়ালি থানায় একটি মামলা করেছে।

শেয়ার করুনঃ
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *