Shadow

ঘূর্ণিঝড় আম্পানের তাণ্ডবে দেশে ১৯ জনের প্রাণহানি

শেয়ার করুনঃ
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আমাদের বাণী ডেস্ক, ঢাকা;  সারা রাত তাণ্ডব চালানোর পর ঘূর্ণিঝড় ‘আম্পান’ এখন দুর্বল হয়ে পড়েছে। আজ বৃহস্পতিবার ভোরের দিকে ঘূর্ণিঝড়টি স্থল-নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। তার আগে সুপার সাইক্লোন আম্পান কিছুটা শক্তি হারিয়ে অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড় রূপে বুধবার দুপুরের পর ভারতের পশ্চিমবঙ্গ উপকূলে আঘাত হানে। পরে সন্ধ্যায় আছড়ে পড়ে সুন্দরবনসহ বাংলাদেশের উপকূলে। আম্পানের তাণ্ডবে দেশের বিভিন্ন জেলায় কমপক্ষে ১৯ জনের প্রাণহানি হয়েছে।

তাদের মধ্যে বরিশাল বিভাগের ভোলা জেলায় ২ জন, পটুয়াখালীতে ২ জন, পিরোজপুর ৪ জন , বরগুনায় ১ জন এবং সন্দ্বীপে ১ জন, যশোরে ৬ জন , সাতক্ষীরায় ১ জন, ঝিনাইদহে ১ জন ও রাজশাহীতে ১ জনের মৃত্যু হয়েছে। সংবাদদাতাদের পাঠানো খবরে বিস্তারিত-

পিরোজপুর; ৪ জন (২ পুরুষ, শিশু ও বৃদ্ধা )

  • ঘূর্ণিঝড় আম্পানের কারণে পিরোজপুরে তিনজন মারা গেছেন। পিরোজপুরে ঘূর্ণিঝড় আমফানের আঘাতে নিজের ঘরের পাকা দেয়াল ভেঙে চাপা পড়ে একজনের মৃত্যু হয়েছে। নিহত ব্যক্তির নাম মজিবুর রহমান (৫৫)। বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে মঠবাড়িয়া উপজেলার মঠবাড়িয়া কলেজের পেছনে এ ঘটনা ঘটে বলে জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোল্লা আজাদ হোসেন জানিয়েছেন।
  •  বুধবার (২০ মে) সন্ধ্যায় পটুয়াখালীর গলাচিপা উপজেলার পানপট্টি এলাকায় ঝড়ো হাওয়ায় গাছের ডাল ভেঙে পড়ে রাসেদ (৬) নামে এক শিশু ও কলাপাড়ায় মানুষকে সচেতন করতে গিয়ে ধানখালীর ছৈলাবুনিয়া এলাকায় খালে নৌকা ডুবে নিখোজঁ শাহ আলম নামে এক স্বেচ্ছাসেবীর মৃত্যু হয়েছে। । গলাচিপা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুল ইসলাম জানান, সন্ধ্যায় গলাচিপা উপজেলার পানপট্টি এলাকায় ঝড়ে গাছের ডাল ভেঙে পড়ে ছয় বছরের শিশু রাসেদ মারা গেছে। কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু হাসনাত মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ জানান, কলাপাড়ায় ঘূর্ণিঝড় আম্ফান মোকাবিলায় মানুষকে সচেতন করতে গিয়ে সকালে ধানখালীর ছৈলাবুনিয়া এলাকায় খালে নৌকা ডুবে নিখোজঁ স্বেচ্ছাসেবী শাহআলমের মরদেহ সন্ধ্যায় উদ্ধার করেছে ডুবুরি দল।
  • এছাড়া মঠবাড়িয়ায় বাড়ি থেকে বের হওয়ার সময় সন্ধ্যা ৭টায় পা পিছলে পড়ে গিয়ে গুলবানু (৬৫) নামে এক বৃদ্ধা মারা যান।
  • এদিকে, ইন্দুরকান্দি থানার ওসি মো: হাবিবুর রহমান জানান, জেলার ইন্দুরকান্দি উপজেলায় উমেদপুর গ্রামে পানি বৃদ্ধি পেয়ে ঘরের চৌকি পর্যন্ত চলে আসায় তা দেখে আতঙ্কে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে শাহআলম (৫৫) নামে একজনের মৃত্যু হয়।

ভোলা; ২ জন (পুরুষ) 

  • ভোলার চরফ্যাশন উপজেলায় উপজেলার দক্ষিণ আইচা থানার চর কচ্ছুপিয়ায় রেইনট্রি গাছ ভেঙ্গে সিদ্দিক ফকিরের মাথায় পড়লে তিনি জখম হয়। তাৎক্ষণিক তাকে চরফ্যাশন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকেরা বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া পথে তার মৃত্যু হয়।
  • শশীভূষণ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হারুন অর রশিদ জানান, বৃদ্ধ ছিদ্দিক ফকির বুধবার দুপুরে তার বাড়ি থেকে একটি ভাড়া চালিত মোটরসাইকেল করে বয়স্ক ভাতার টাকা তুলতে শশীভূষণ রওনা হয়। শশীভূণের কাছাকাছি গেলে প্রচণ্ড বাতাসে রাস্তার পাশের একটি গাছ ভেঙে ওই বৃদ্ধের গায়ে পড়েরে। এতে ওই বৃদ্ধসহ মোটরসাইকেল চালক আহত হয়। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় তাদের উদ্ধার করে চরফ্যাশন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে সেখান কার চিকিৎসকরা ছিদ্দিক ফকিরকে মৃত ঘোষণা করেন। এছাড়াও আহত মোটরসাইকেল আরোহী ওই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
  • ভোলায় ঘূর্ণিঝড় আম্পানের তাণ্ডবে পড়ে রামদাসপুর চ্যানেল ৩০ যাত্রীসহ একটি ট্রলার ডুবে রফিকুল ইসলাম নামে একজন নিহত হয়েছে। তার বাড়ি ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার মনিরাম এলাকায়। ওই ব্যক্তিসহ ৩০ যাত্রী ঢাকা ও চট্টগ্রাম থেকে আসেন। তারা লক্ষ্মীপুর জেলার মজুচৌধুরী ঘাট থেকে ট্রলার যোগে মেঘনা নদী পাড়ি দিয়ে ভোলায় আসে। ওই ট্রলার রাজাপুর সুলতানীঘাটের কাছে এলে ট্রলারটি ডুবে যায়। ওই সময় স্রোতের টানে ভেসে যান রফিকুল ইসলাম। পরে তার লাশ উদ্ধার করেন স্থানীয়রা।
  • ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন ইলিশা ফাঁড়ির ইনচার্জ রতন কুমার শীল। তিনি জানান, ট্রলার ডুবে যাওয়ার স্পটটি ছিল মেহেন্দীগঞ্জ সীমানায়।

সাতক্ষীরা; ১ জন (মধ্য বয়সী নারী)

  • সাতক্ষীরা শহরের সংগীতা মোড় এলাকায় আম কুড়াতে গিয়ে ঝড়ের কবলে পড়ে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। রাত ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। নিহত ওই মধ্য বয়সী নারী শহরের কামালনগর এলাকার বাসিন্দা।
  • সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)  আসাদুজ্জামান জানান, ঝড়ের মধ্যে আম কুড়াতে গিয়ে গাছের ডাল ভেঙে পড়ে ওই নারীর মৃত্যু হয়েছে। তবে তার নাম পরিচয় জানা যায়নি। এখনও রাত সাড়ে ৯টার দিকেও প্রচণ্ড গতিবেগে ঝড় চলছে বিস্তারিত এখনও জানা যায়নি।

পটুয়াখালী; ২ জন  (শিশু ও আম্ফানে কাজ করা স্বেচ্ছাসেবী)

  • আজ বুধবার (২০ মে) সন্ধ্যায় পটুয়াখালীর গলাচিপা উপজেলার পানপট্টি এলাকায় ঝড়ো হাওয়ায় গাছের ডাল ভেঙে পড়ে রাসেদ (৬) নামে এক শিশু ও কলাপাড়ায় মানুষকে সচেতন করতে গিয়ে ধানখালীর ছৈলাবুনিয়া এলাকায় খালে নৌকা ডুবে নিখোজঁ শাহ আলম নামে এক স্বেচ্ছাসেবীর মৃত্যু হয়েছে।
  • গলাচিপা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুল ইসলাম জানান, সন্ধ্যায় গলাচিপা উপজেলার পানপট্টি এলাকায় ঝড়ে গাছের ডাল ভেঙে পড়ে ছয় বছরের শিশু রাসেদ মারা গেছে।
  • কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু হাসনাত মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ জানান, কলাপাড়ায় ঘূর্ণিঝড় আম্ফান মোকাবিলায় মানুষকে সচেতন করতে গিয়ে সকালে ধানখালীর ছৈলাবুনিয়া এলাকায় খালে নৌকা ডুবে নিখোজঁ স্বেচ্ছাসেবী শাহআলমের মরদেহ সন্ধ্যায় উদ্ধার করেছে ডুবুরি দল।
  ই-পাসপোর্ট: দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে সর্বপ্রথম বাংলাদেশ

যশোর; ৬  জন (৪ নারী ও ২ পুরুষ)

  •  ঘূর্ণিঝড় আম্পানের আঘাতে যশোরে ছয়জনেরর মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া দীর্ঘস্থায়ী এই ঝড়ে জেলার বিভিন্ন উপজেলায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার (২১ মে ২০২০) বিকালে যশোর জেলা প্রশাসন সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।
    • নিহতরা হলেন, শার্শা উপজেলার গোগা গ্রামের পশ্চিমপাড়ার শাহজাহান আলীর স্ত্রী ময়না খাতুন (৪০), জামতলা এলাকার আব্দুল গফুরের ছেলে মুক্তার আলী (৬৫) ও শার্শা সদরের মালোপাড়া এলাকার সুশীল বিশ্বাসের ছেলে গোপাল চন্দ্র বিশ্বাস (৫৫), চৌগাছা উপজেলার চানপুর গ্রামের মৃত ওয়াজেদ হোসেনের স্ত্রী খ্যান্ত বেগম (৪৫) ও তার মেয়ে রাবেয়া (১৩) এবং বাঘারপাড়া উপজেলার বুদোপুর গ্রামের সাত্তার মোল্লার স্ত্রী ডলি বেগম (৪৮)।

    জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শফিউল আরিফ জানান, ঘূর্ণিঝড় আম্পানে যশোরে ছয় জন গাছ চাপায় মারা গেছেন। এরমধ্যে শার্শা উপজেলায় তিন জন, চৌগাছা উপজেলায় দুই জন এবং বাঘারপাড়ায় একজন রয়েছেন। নিহত প্রত্যেকের পরিবারকে ২০ হাজার টাকা করে সহায়তা দেওয়া হবে।

চট্টগ্রাম: ১ জন (যুবক) 

  •  চট্টগ্রামের সন্দ্বীপে ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের জোয়ারের পানিতে ডুবে মোহাম্মদ সালাউদ্দিন নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। বুধবার দুপুরে পৌরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডের নদীর তীর থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করেছে স্থানীয়রা।
  • সন্দ্বীপ থানার পরিদর্শক তদন্ত মো. সোলাইমান জানান, উপকূলে ঘাস কাটতে গিয়ে ওই যুবক জোয়ারের পানিতে পড়ে যান। পরে স্থানীয়রা তার মরদেহ উদ্ধার করে।

বরগুনা; ১ জন (বৃদ্ধ)

  • ঘূর্ণিঝড় আম্পান থেকে বাঁচতে বরগুনা সদর উপজেলায় আশ্রয়কেন্দ্রে যাওয়ার পথে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে।  উপজেলার এম বালিয়াতলী ইউনিয়নের পরীরখাল আশ্রয়কেন্দ্রে যাওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। নিহত বৃদ্ধের নাম শহীদ (৭০)। তিনি একই এলাকার বাসিন্দা।
  • বরগুনা সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুমা আক্তার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, মারা যাওয়া বৃদ্ধ আগে থেকেই অসুস্থ ছিলেন। আমরা তার পরিবারকে যথাযথ সহায়তা প্রদান করব।

ঝিনাইদহ; ১ জন (নারী)

  • ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের তাণ্ডবে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার হলিধানী গ্রামে ঘরের ওপর গাছ ভেঙে পড়ে নাদিরা বেগম নামে একজন নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার (২১ মে) সকালে জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথ মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
  • স্থানীয়রা জানান, ঝড়ের সময় তারা ঘরে ছিলেন। রাতে ঘরের পাশে থাকা একটি গাছ ভেঙে পড়ে ঘরের উপর। এ সময় ওই নারী নিহত হন। পরে সকালে ফায়ার সার্ভিস এসে মরদেহ উদ্ধার কাজ করে।

রাজশাহী; ১ জন (নারী) 

  • রাজশাহীর মোহনপুরে ঘূর্ণিঝড় আম্পানের মধ্যে আম কুড়াতে গিয়ে মনোয়ারা বেগম (৪২) নামে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। তিনি উপজেলার হরিদাগাছি গ্রামের বারুইপাড়ার ইসহাক আলীর স্ত্রী। বুধবার দিবাগত রাত সাড়ে ৩টার দিকে বাড়ির পাশে আম গাছের নিচে তাকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করে পরিবারের সদস্যরা। তিনি করোনা সতর্কতায় হোম কোয়ারেন্টিনে ছিলেন।
  • মোহনপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সানওয়ার হোসেন জানান, ‘আম কুড়াতে গিয়ে মারা যাওয়া নারীর মেয়ে কিছুদিন আগে ঢাকা থেকে বাড়িতে ফেরেন। তার নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে এবং তাদেরকে কোয়ারেন্টিনে থাকতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল।
  • মোহনপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাক আহম্মেদ বলেন, তার শরীরে কোনো আঘাতের চিহ্ন নেই। কোনো গাছ বা গাছের ডালও ভেঙ্গে পড়েনি। কীভাবে তিনি মারা গেছেন তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

আমাদের বাণী ডট/২১  মে ২০২০/পিবিএ 

শেয়ার করুনঃ
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •