দুই সতীনের ঝগড়া

মোঃ হুমায়ূন কবীর ফরীদি, জগন্নাথপুর (সুনামগঞ্জ) সংবাদদাতাল; জেলার  জগন্নাথপুরের পল্লীতে ছোট ভাই নাসির এর দুই স্ত্রীর ঝগড়া থামাতে গিয়ে বড় ভাই রোয়াব আলী মৃত্যু বরন করেছেন। এ নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

স্থানীয় একাধিক সুত্রে জানা যায়, উপজেলার কলকলিয়া ইউনিয়ন এর অন্তর্ভুক্ত নাদামপুর গ্রাম নিবাসী আব্দুর রউফ এর ছেলে নাসির উদ্দীন এর দুই স্ত্রী গতকাল বুধবার  (২৭ শে মে)  দিবাগত রাত ৮ ঘটিকার দিকে পারিবারিক বিষয় নিয়ে ঝগড়ায় জড়িয়ে পড়েন। এই সময় তাদের ঝগড়া থামাতে গিয়ে রোয়াব আলী (৫০) আঘাত প্রাপ্ত হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। তাৎক্ষণিক ভাবে আশপাশের লোকজন রোয়াব আলীকে জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে জরুরী বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ মোঃ মোবারক হোসেন জনি তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এবং হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার আগেই রোয়াব আলীর মৃত্যু হয়েছে বলে তিনি জানান।

দুর্ঘটনার খবর পেয়ে জগন্নাথপুর থানা পুলিশ মৃত দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে প্রেরণ করে।আজ ২৮ শে মে বিকালে মৃত রোয়াব আলীর লাশ পারিবারিক কবর স্থানে দাফন করা হয়েছে।

  করোনায় ব্যবসা বন্ধ, যুবকের আত্মহত্যা

রোয়াব আলীর নিহত হওয়ার ঘটনাকে ঘিরে পরস্পর বিরোধী বক্তব্য পাওয়া গেছে। কেউ বলছেন দুই সতীন এর ঝগড়া থামাতে গিয়ে আঘাত পেয়ে রোয়াব আলীর মৃত্যু হয়েছে। কেউ বলছেন ঝগড়া থামাতে গিয়ে উত্তেজিত হয়ে স্ট্রোক করে মৃত্যু হয়েছে। আবার কেউ বলছেন পাকা সিড়ি থেকে পড়ে মৃত্যু হয়েছে। তবে কোনটি সত্য এ রহস্য উদঘাটনে মাঠে নেমেছে পুলিশ প্রশাসন ।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জগন্নাথপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী জানান, লাশের শরীরে আঘাতের কোনো চিহ্ন নেই। হাতের আঙুলে সামান্য আঘাত ছিল। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পাওয়া গেলে এ বিষয়ে পরবর্তী আইনানুগ পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

আমাদের বাণী ডট কম/২৮  মে ২০২০/সিসিপি