Shadow

ঝালকাঠিতে আরও ২ জনসহ মোট ১৭ জনের করোনা শনাক্ত

শেয়ার করুনঃ
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঝালকাঠি; জেলার কাঠালিয়া উপজেলায় এই সর্বপ্রথম ২জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। এনিয়ে জেলায় মোট ১৭ জনের করোনা শনাক্ত করা হয়েছে। আক্রান্তদের বাড়িসহ আশপাশের কয়েকটি বাড়ি লক ডাউন করা হয়েছে।

এদের একজনের বাড়ি উপজেলার শৌলজালিয়ায় এবং আরেকজনের বাড়ি আমুয়ায়।

আজ বৃহস্পতিবার (১৪ মে ২০২০) ঝালকাঠি সিভিল সার্জন ডা. শ্যামল কৃষ্ণ হাওলাদার বৃহস্পতিবার এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, নারায়নগঞ্জ ও চট্টগ্রাম থেকে কাঠালিয়ায় আসা ২ জনের দেহে করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসছে। তাদের বাড়িসহ আশপাশের কয়েকটি বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে। আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

শৌলজালিয়া ইউপি চেয়ারম্যান মাহমুদ হোসেনঝালকাঠি , কাঠালিয়া উপজেলা , করোনা রিপন জানান, ৭/৮দিন আগে করোনা’র হট স্পট নারায়নগঞ্জ থেকে একই পরিবারের ৭জন তাঁদের গ্রামের বাড়িতে আসেন। বাড়িতে আসার সাথে সাথেই তাঁদের হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করা হয়েছে। ওই পরিবারের বাড়িতে একটিই ঘর। নারায়ানগঞ্জ থেকে আসার সাথে সাথেই তাদের কোয়ারেন্টিনে রেখে যাবতীয় খাদ্য সামগ্রী তাদের বাড়িতে পৌঁছানো হচ্ছে।

আগতদের কারো মধ্যে করোনার লক্ষণ দেখা না গেলেও সচেতনতার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসকের মাধ্যমে তাদের নমুনা সংগ্রহ করে টেস্ট রিপোর্টের জন্য প্রেরণ করা হয়।

এদের মধ্যে এক বৃদ্ধার (৬৫) রিপোর্টে করোনা পজিটিভ আসে। পরিবারের অন্যদের রিপোর্টে করোনা নেগেটিভ আসে। অপরজন একই উপজেলার আমুয়া ইউনিয়নের বাঁশবুনিয়া গ্রামের মধ্যবয়সী (৪৫ বছর তার বয়স)। তিনি সপ্তাহখানেক পূর্বে চট্টগ্রাম থেকে এসেছেন। তার সর্দি, কাঁশি দেখে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক নমুনা সংগ্রহ করে টেস্ট রিপোর্টের জন্য বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরণ করেন। তার রিপোর্টে করোনা পজিটিভ আসে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আকন্দ মোঃ ফয়সাল আক্রান্তদের বাড়ি গিয়ে লকডাউন ঘোষণা করেন। তিনি জানান, কাঠালিয়া উপজেলার শৌলজালিয়া গ্রামে নারায়নগঞ্জ থেকে একটি পরিবার আসলে তাদের নমুনা টেস্ট করানো হলে এক বৃদ্ধার করোনা পজেটিভ আসে। আমুয়া ইউনিয়নের বাঁশবুনিয়া গ্রামের এক মধ্যবয়সী লোকেরও করোনা পজিটিভ আসে।

  মাগুড়ায় ত্রাণ বঞ্চিতদের খুঁজে খুঁজে ত্রাণ দিল বাসদ

সে চট্টগ্রাম থেকে এলাকায় সপ্তাহখানেক পুর্বে আসেন। তাদের বাড়িসহ আশপাশের কয়েকটি বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে। চিকিৎসা ও খাদ্যসহ তাদের সব ধরনের সেবা দেয়ার প্রস্তুতি রয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনাভাইরাস সংক্রান্ত নিয়মিত হেলথ বুলেটিনের সর্বশেষ (১৪ মে ২০২০) তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাস শনাক্তে আরও সাত হাজার ৮৩৭টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরীক্ষা করা হয় সাত হাজার ৩৯২টি নমুনা। এ নিয়ে দেশে মোট নমুনা পরীক্ষা করা হলো এক লাখ ৫১ হাজার ৯৩০টি। নতুন নমুনা পরীক্ষায় আরও এক হাজার ৪১ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে দেশে মোট আক্রান্ত হয়েছেন ১৮ হাজার ৮৬৩ জন। আক্রান্তদের মধ্যে মারা গেছেন আরও ১৪ জন। ফলে মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ২৮৩-এ।

আমাদের বাণী ডট/১৪ মে ২০২০/পিবিএ 

শেয়ার করুনঃ
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •