ঝিনাইদহের বনবাদাড়ে নাম না জানা শাঁকসবজি ভরপুর

ঝিনাইদহের অজ গ্রামের বনবাদাড়ে শাঁকসবজি ভরপুর। নানান ভিটামিনে সমৃদ্ধ এই শাঁক সব্জির নাম গ্রামের মানুষরা খুব বেশি জানেন না। ডাটা আর কচু শাঁক ছাড়া সব শাঁকেরই গেঁয়ো নাম আছে। বাড়ির আঙ্গিনা, পুরানো ভিটে, মাঠ আর পুকুর পাড়ে নাম না জানা এসব শাঁকের সমারাহো।

গ্রামের মানুষ এগুলো বিনা টাকায় খেতে পারলেও শহরের মানুষকে কিনে খেতে হয়। সকাল থেকেই শাঁক তুলতে বেরিয়ে পড়েন গৃহবধুরা। স্থানীয় ভাষায় এই শাঁকগুলোকে বলে গোয়াল নটেম কাঁটানটে, ঠনঠনে, চিড়েকোটা, শান্তির শাঁক, হেলেনচা, গাধোমনি, সুড়সুড়ি, গাংনটে ও গাধানটে। কি ভাবে ও কখন এ সব শাঁকের নামকরণ করা হয়েছে তা জানা না গেলেও কৃষিবিদদের মতে বেশির ভাগ নাম প্রাপ্তির স্থান ও আকৃতি দেখে রাখা হয়েছে।

  সারা দেশে পেঁয়াজের দাম নিয়ে ধূম্রজাল: কেজি প্রতি দাম ৮০ টাকা

যেমন নদীর কিনারে পাওয়া যায় বলে গাংনটে বলা হয়। চিড়ের মতো দেখতে বলে বলা হয় চিড়েকোটা শাঁক। শহরের মানুষ গ্রামে গেলে প্রতিবেশি ও দায় দেয়েদিরা বেশ আগ্রহ করেই এ সব শাঁক তুলে ব্যাগ ভর্তি করে দেন। শাঁক তুলতে তাদের মধ্যে কোন অলসতা দেখা দেখা যায় না। এসব শাঁক খেতে যেমন মজাদার ও সুস্বাদু তেমনি ভিটামিন সমৃদ্ধ ও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বেশি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *