বহিস্কৃত ছাত্রলীগ নেত্রী সেই জারিনের আত্মহত্যার চেষ্টা

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক মন্তব্য করে সংগঠন থেকে বহিষ্কার হয়ে স্লিপিং পিল খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টাকারী ছাত্রলীগের সাবেক কেন্দ্রীয় সদস্য জারিন দিয়ার বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করা হয়েছে। মঙ্গলবার দিনগত রাতে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের এক জরুরি সিদ্ধান্ত মোতাবেক জানানো যাচ্ছে যে, গত ১৩ মে মধুর ক্যান্টিনে সংঘটিত অনাকাঙ্ক্ষিত ও অপ্রীতিকর ঘটনার প্রেক্ষিতে গত ২০ মে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সাময়িক বহিষ্কৃত জারিন দিয়া (সাবেক সদস্য, কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ) তার কৃতকর্মের জন্য ভুল স্বীকার করে অনুতপ্ত হওয়ায় মানবিক দিক বিবেচনা করে তার ওপর আরোপিত বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করা হলো।

  ঢাবি প্রক্টরিয়াল টিমের ওপর বহিরাগতদের হামলা

এর আগে গত ১৩ মে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে ছাত্রলীগের পদবঞ্চিতদের ওপর হামলার ঘটনায় ৫ জনকে বহিষ্কার করা হয়। ছাত্রলীগের গত কমিটির কেন্দ্রীয় সদস্য জারিন দিয়া ছিলেন তার মধ্যে অন্যতম। যদিও মারামারির দিন তিনি নিজেও হামলার শিকার হয়েছিলেন।

তবে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে নিয়ে ফেসবুকে তার দেওয়া আপত্তিকর একটি পোস্ট ভাইরাল হয়ে গেলে তাকে বহিষ্কার করা হয়েছিল বলে অভিযোগ করছিলেন দিয়া।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *