Shadow

ভারতে ২৪ ঘন্টায় করোনায় আক্রান্ত ৩৫ হাজার, মোট ১০ লাখ

শেয়ার করুনঃ
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ডেস্ক রিপোর্ট, ঢাকা;  প্রায় প্রতিদিনই রেকর্ড গড়ে বাড়ছে ভারতে করোনা সংক্রমণের সংখ্যা। ভারতে ফের সর্বোচ্চ হারে করোনা সংক্রমণ খবর এলো। নতুন করে শেষ ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত হলেন ৩৪ হাজার ৯৫৬ জন। যার জেরে ভারতজুড়ে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা পেরিয়ে গেল ১০ লাখের গণ্ডি।

ভারতে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ১০ লাখ ৩ হাজার ৮৩২। শেষ ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ৬৮৭ জনের। ফলে মোট মৃত্যু সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ২৫ হাজার ৬০২। ভারতে বর্তমানে কোয়ারেন্টিনে রয়েছে ৩ লাখ ৪২ হাজার ৪৭৩ জন। সুস্থ হয়ে উঠেছেন মোট ৬ লাখ ৩৫ হাজার ৭৫৭ জন। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সূত্রে থেকে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

অন্যদিকে সাম্প্রতিক সমীক্ষায় মিলছে নতুন নতুন তথ্য। গবেষকরা জানাচ্ছেন করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে সুস্থ হওয়া এত সহজ ব্যাপার নয়। কারণ সাম্প্রতিক গবেষণা বলছে করোনা থেকে সুস্থ হওয়ার প্রক্রিয়া জটিল ও দীর্ঘমেয়াদী।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার দুর্বলতাতেই শরীরে জাঁকিয়ে বসে করোনাভাইরাস। মানসিক, শারীরিক ও স্নায়ুতন্ত্রের ক্ষতিসাধন করে। দেখা গেছে সেরে ওঠার পরেও করোনা ছাপ ফেলেছে রোগীর শরীরে। ক্লিনিক্যাল গবেষকরা বলছেন সেরে ওঠার পরে রোগীরা অসম্ভব দুর্বল হয়ে পড়ছেন। ক্লান্তি আসছে, শ্বাসকষ্টের সমস্যা থাকছে।

তবে এরই মধ্যে মিলেছে সুখবর। ভ্যাক্সিনের ক্ষেত্রে সবার আগে যারা আলো দেখাতে শুরু করেছিল, তাদের মধ্য অন্যতম অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটি। এরাই সবার আগে হিউম্যান ট্রায়াল শুরু করে। তাই সেদিকেই তাকিয়ে বসে আছে গোটা বিশ্ব। আর সেখান থেকে খুব তাড়াতাড়ি কিছু একটা খবর আসতে চলেছে বলে জানা গেছে।

এদিকে বাংলাদেশে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত অনলাইন স্বাস্থ্য বুলেটিনের সর্বশেষ (১৬ জুলাই ২০২০) দেশে করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ৩৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময়ে আক্রান্ত হয়েছেন ২ হাজার ৭৩৩ জন। এ নিয়ে দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ লাখ ৯৬ হাজার ৩২৩ জনে আর মোট মারা গেছেন ২ হাজার ৪৯৬ জন। ‘আমরা গত ২৪ ঘণ্টায় ৮০টি পরীক্ষাগার থেকে নমুনা সংগ্রহ হয়েছে ১৩ হাজার ৫৪৮টি। আর নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১২ হাজার ৮৮৯টি। মোট নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৯ লাখ ৯৩ হাজার ২৯১টি। ২৪ ঘণ্টায় এই সংগৃহীত নমুনা থেকে শনাক্ত রোগী পেয়েছি ২ হাজার ৭৩৩ জন। ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ২১ দশমিক ২০ শতাংশ। এ পর্যন্ত শনাক্ত ১ লাখ ৯৬ হাজার ৩২৩ জন। শনাক্তের হার ১৯ দশমিক ৭৬ শতাংশ।’ ‘২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছে ১ হাজার ৯৪০ জন। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছে ১ লাখ ৬ হাজার ৯৬৩ জন। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৫৪ দশমিক ৪৮ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুবরণ করেছে ৩৯ জন। এ পর্যন্ত মৃত্যু দাঁড়ালো ২ হাজার ৪৯৬ জন। শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ২৭ শতাংশ। মৃত্যু বিশ্লেষণে পুরুষ ৩১ জন এবং নারী ৮ জন। এ পর্যন্ত মৃত্যুবরণ করেছেন পুরুষ ১ হাজার ৯৭১ জন এবং নারী ৫২৫ জন।’

  গ্যাস্ট্রিক প্রতিরোধক রেনিটিডিনে ক্যান্সার সৃষ্টিকারী উপাদান

আমাদের বাণী ডট কম/১৭  জুলাই ২০২০/পিপিএম

সৈয়দপুরের বিজ্ঞাপন

শেয়ার করুনঃ
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •