৪০তম বিসিএস প্রিলিমিনারির আসন বিন্যাস প্রকাশ

সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগের আবেদন কার্যক্রম শেষ হয় সাত মাস আগে। কিন্তু এতোদিন পার হওয়ার পরও এ মাধ্যমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার দিন-তারিখ নির্ধারণ করা হয়নি। ফলে প্রায় আড়াই লাখ আবেদনকারী নিয়োগ পরীক্ষার অপেক্ষায় দিন পার করছেন।

তবে চলতি জুন মাসের শেষের দিকে এ পরীক্ষার আয়োজন করা হতে পারে বলে বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন (বিপিএসসি) সূত্রে জানা গেছে।

এ পরীক্ষা আয়োজনের বিষয়ে জানতে চাইলে বিপিএসসির পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক (নন-ক্যাডার) নজরুল ইসলাম সম্প্রতি গণমাধ্যমকে বলেন, মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার দিন-তারিখ নির্ধারণ করা হয়নি। তবে পরীক্ষা সংক্রান্ত অন্যান্য কার্যক্রম শেষ করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা র দিন নির্ধারণে পিএসসিতে এক সভায় আলোচনা হয়েছে। সভায় এই পরীক্ষা আগামী জুনের শেষের দিকে নেয়ার নীতিগত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এ লক্ষ্য নিয়ে আমরা কাজ করছি। দ্রুত এ পরীক্ষার দিন ধার্য করতে ফাইল তোলা হবে। এরপর পরীক্ষার দিন নির্ধারণ করে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে।

  ১২ নভেম্বর থেকে ১৫তম শিক্ষক নিবন্ধনের ভাইভা শুরু

জানা গেছে, সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক পদটি দ্বিতীয় শ্রেণির মর্যাদা দেয়ার পরে গত বছর প্রথমবারের মতো সরাসরি নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে বিপিএসসি। গত বছরের ১০ সেপ্টেম্বর থেকে আবেদন গ্রহণ শুরু হয়ে ৮ অক্টোবর শেষ হয়।

গত বছরের ৯ সেপ্টেম্বর প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, বাংলায় ৩৬৫ জন শিক্ষক, ইংরেজিতে ১০৬, গণিতে ২০৫, সামাজিক বিজ্ঞানে ৮৩, ভৌতবিজ্ঞানে ১০, জীববিজ্ঞানে ১১৮, ব্যবসায় শিক্ষায় ৮, ভূগোলে ৫৪, চারুকলায় ৯২, শারীরিক শিক্ষায় ৯৩, ইসলাম শিক্ষায় ১৭২ এবং কৃষি শিক্ষায় ৭২ জন সহকারী শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে। মোট ১,৩৭৮ পদের বিপরীতে ২ লাখ ৩৫ হাজারের বেশি আবেদন জমা পড়ে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *