নৌকাডুবি

সিরাজগঞ্জ সংবাদদাতা;  জেলার চৌহালী উপজেলায় যমুনা নদীতে যাত্রী বোঝাই নৌকা ডুবির ঘটনায় পাঁচজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় নিখোঁজ রয়েছেন অন্তত ১২ যাত্রী। গতকাল মঙ্গলবার দুপুর ২টার দিকে যমুনা নদীর স্থলচর এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

এনায়েতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোল্লা মাসুদ পারভেজ জানান, এনায়েতপুর থেকে প্রায় ৭০ জন যাত্রী নিয়ে নৌকাটি চৌহালীর দিকে যাচ্ছিল। নৌকাটি স্থলচর এলাকায় পৌঁছালে ঝড়ো বাতাসের কবলে পড়ে ডুবে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে শিশুসহ তিনজনের মরদেহ উদ্ধার করে। তারা হলেন বেলকুচি উপজেলার গয়নাকান্দি গ্রামের পাশান ফকির (৬৫), কলাগাছি গ্রামের শামীম হোসেনের ছেলে নাইমুল ইসলাম (৪), টাঙ্গাইলের নাগরপুর উপজেলার সুবর্ণতলী গ্রামের শেখ কামাল মোল্লার (৪৫)।

এদিকে আজ বুধবার (২৭ মে ২০২০)  সকালে আরও দুজনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। এতে নিহতের সংখ্যা দাঁড়ায় পাঁচজনে। এ ছাড়া গতকাল জীবিত অবস্থায় আরও ৫৪ জন যাত্রীকে উদ্ধার করা হয়েছে। এ দুর্ঘটনায় নিখোঁজ রয়েছেন আরও ১২ জন যাত্রী। যাত্রীদের মধ্যে অধিকাংশই ধানকাটা শ্রমিক বলে জানান ওসি।

  রাজাপুরে করনা উপসর্গ নিয়ে পুলিশ সদস্যের মৃত্যু

আজ বুধবার (২৭ মে ২০২০) দুপুরে চৌহালী থানার ওসি রাশেদুল ইসলাম জানান, সকালে জোতপাড়া এলাকায় যমুনা নদী থেকে ভাসমান অবস্থায় অজ্ঞাতপরিচয় এক যুবকের (৩০) মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। পরে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দলের সদস্যরা শাহজাদপুর উপজেলার কৈজুরি এলাকার আব্দুর রশিদের ছেলে আফজাল নামের এক ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার করেন।

সিরাজগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের উপ-সহকারী পরিচালক মনজিল হক জানান, ঢাকা থেকে ডুবুরি দল রাতেই এসে সকাল থেকে উদ্ধার কাজ শুরু করেছে।

আমাদের বাণী ডট কম/২৭  মে ২০২০/সিসিপি