ঝিনাইদহ বিআরটিএ'র ৩ মাসে প্রায় ২ কোটি ২৫ লাখ টাকার রাজস্ব আদায়

ঝিনাইদহের শৈলকুপায় বাদশা শেখ(৩৫) নামে এক মাদকাসক্ত লম্পটের হাত ধরে উধাও হয়ে গেছে ১ সন্তানের জননী হিরা খাতুন। ঘটনাটি ঘটেছে পৌর এলাকার কবিরপুর চরপাড়ায়। এঘটনায় স্বামী জাফিরুল বিশ্বাস শৈলকুপা থানায় একটি সাধারণ ডাইরী(জিডি) দায়ের করেছেন। যার জিডি নং ৯৪৫ তাং ২১/৩/১৯ ইং।

এঘটনায় স্বামী জাফিরুল সূত্রে জানা যায়, উপজেলা সাধুহাটি গ্রামের কৌপাড়া মন্টু বিশ্বাসের মেয়ে হিরা খাতুন(৩০) এর সাথে দীর্ঘ ১০ বছর আগে পারিবারিকভাবে বিবাহ হয় জাফিরুল বিশ্বাসের। বিয়ের বছর খানেক পরে তাদের ঘরে আলোকিত করে আসে এক পুত্র সন্তান। এক পুত্র সন্তানকে নিয়ে সুখেই চলছিল জাফিরুল-হিরার সংসার। কিছুদিন আগে ছেলেকে খৎনা করান জাফর। ছেলের সুন্নাতে খাৎনা অনুষ্ঠান ধুমধাম করেই পালন করেন। সেই সুন্নাতে খাৎনায় সর্বনাশ হলো জাফরের সুখের সংসার। সুন্নাতে খাৎনায় মাদকাসক্ত বাদশা তাদের বাড়িতে দুদিন আসে। তারপর থেকেই হিরার ওপর কুনজর পড়ে পৌর এলাকার কবিরপুর(চরপাড়া) মৃত আইনুদ্দিন শেখের ছেলে লম্পট বাদশার। হিরার স্বামী জাফিরুল সাদাসিধে মনের মানুষ হওয়ার সুযোগে হিরাকে প্রচোরণার মাধ্যমে ভাগিয়ে নিয়ে গেছে।

  ঠাকুরগাঁওয়ে বজ্রপাতে কৃষকের মৃত্যু

তিনি আরো বলেন, গত ১০ বছরের সংসারে আমার স্ত্রী’র কোন খারাপ দিক দেখিনি। লম্পট বাদশা আমার স্ত্রী’র ওপর তাবিজ কবজ বা যাদুটনা করে ভাগিয়ে নিয়ে গেছে। লম্পট বাদশা পূর্বে আরো পাঁচটি বিবাহ করেছেন। রাতদিন গাঁজা সেবন ও চরিত্রগত খারাপ হওয়ার কারণে ৪টি বউ চলে গেছে। ১ সন্তানের জননী হিরা খাতুনকে নিয়ে ১০ ভরি স্বর্ণালংকার ও মোটা অংকের টাকাসহ গত ২০ মার্চ উধাও হয়ে গেছে লম্পট বাদশা। উধাও হওয়ার পর থেকে জাফিরুল বিভিন্ন জায়গায় খোঁজখবর করে না পেয়ে থানায় সাধারণ ডাইরী(জিডি) করেছেন।

শৈলকুপা থানার ওসি কাজী আয়ুবুর রহমান জানান, বাদশা হিরা উধাও হওয়ার ঘটনা আমি শুনেছি। হিরার স্বামী এঘটনায় থানায় সাধারণ ডাইরী(জিডি) দায়ের করেছেন। আমরা চেষ্টা করছি তাদেরকে খুঁজে বের করার জন্য।

আমাদের বাণী-আ.আ.হ/মৃধা

[wpdevart_like_box profile_id=”https://www.facebook.com/amaderbanicom-284130558933259/” connections=”show” width=”300″ height=”550″ header=”small” cover_photo=”show” locale=”en_US”]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *