Shadow

ঘূর্ণিঝড় আম্পানে সারাদেশে ১৬ জনের মৃত্যু: স্বাস্থ্য অধিদফতর

শেয়ার করুনঃ
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঢাকা;  প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের মধ্যেই সুপার সাইক্লোন থেকে প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নেওয়া আম্পানের প্রভাবে দেশের বিভিন্ন জেলায় এখন পর্যন্ত ১৬ জনের খবর নিশ্চিত করেছে স্বাস্থ্য অধিদফতর।

এর মধ্যে পাঁচ বছর বয়সী একটি শিশুও রয়েছে। এছাড়া দেশের বিভিন্ন স্থানে এখন পর্যন্ত সাত জন আহত হওয়ার তথ্যও জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর।

বৃহস্পতিবার (২১ মে) স্বাস্থ্য অধিদফতরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশনস সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের সহকারী পরিচালক ডা. আয়েশা আক্তার গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশনস সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের তথ্য অনুযায়ী, বরিশাল বিভাগের পটুয়াখালী জেলার গলাচিপা উপজেলার পানপট্টিতে পাঁচ বছর বয়সী শিশু রাশেদ গাছচাপায় মারা গেছে। আর কলাপাড়া উপজেলায় সৈয়দ শাহ আলম নামে ৫৪ বছর বয়সী একজন স্বেচ্ছাসেবী মারা গেছেন নৌকাডুবিতে।

এছাড়াও বরিশালের হিজলা উপজেলায় একজন আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। পটুয়াখালীর গলাচিপা উপজেলায় একজনকে ও মির্জাগঞ্জ উপজেলায় একজনকে আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ভোলার চরফ্যাশনেও তিন জনের আহত হওয়ার খবর মিলেছে।

আরও পড়ুন; আম্ফানে ১১০০ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি, ১০ জনের মৃত্যু: ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী

এদিকে, ভোলা জেলার চরফ্যাশন উপজেলা চরকচ্ছারিয়া নামক স্থানে ৭২ বছর বয়সী মো. সিদ্দিক মারা গেছেন গাছচাপা পড়ে। একই জেলার বোরহানউদ্দিন উপজেলায় ৩৫ বছর বয়সী রফিকুল ইসলাম মারা গেছেন ট্রলারডুবিতে।

পিরোজপুর জেলার মঠবাড়িয়া উপজেলার দাউদখালী নামক স্থানে শাহাজান মোল্লা নামে ৫৫ বছর বয়সী এক ব্যক্তি মারা গেছেন দেয়ালে চাপা পড়ে। একই উপজেলার আমরাগাছী এলাকায় ৭০ বছর বয়সী গুলেনুর বেগম মারা গেছেন ঝড়ে পা পিছলে পড়ে। এছাড়া একই জেলার ইন্দুরকানীর উমিদপুরে ৫০ বছর বয়সী শাহ আলম ঝড়ের তাণ্ডবের সময় স্ট্রোক করে মারা গেছেন।

আরও পড়ুন; ঘূর্ণিঝড় আম্পানের তাণ্ডবে দেশে ১৯ জনের প্রাণহানি

বরগুনা জেলার সদর উপজেলার বালিয়াতলিতে কাজী শহীদ নামে ৬৩ বছর বয়সী একজন মারা গেছেন গাছচাপায়। সাতক্ষীরা জেলার সদর উপজেলার কামালনগর নামক স্থানে গাছচাপায় অজ্ঞাতনামা একজন মারা গেছেন। যশোর জেলার চৌগাছা উপজেলার চানপুর নামক স্থানে গাছচাপায় মারা গেছেন ক্ষ্যানত বেগম (৪৫) ও তার মেয়ে রাবেয়া (১৩)।

  জিয়াকে জাতির পিতা ঘোষণার পাঁয়তারা করছে তারেক: কৃষিমন্ত্রী

এছাড়াও যশোরের শার্শা উপজেলার বাগআচড়া ইউনিয়নে গাছের চাপায় মারা গেছেন ৬৫ বছর বয়সী মোক্তার আলী। একই স্থানে ময়না বেগম ও গোপাল নামে আরও দু’জন গাছ চাপা পড়ে মারা গেলেও তাদের বয়স জানা যায়নি। এছাড়া ঝিনাইদহ জেলায় নাদিরা বেগম নামের একজনের মৃত্যু হয়েছে গাছচাপা পড়ে।

চট্টগ্রাম বিভাগের সন্দীপ উপজেলার ২ নম্বর পৌরসভায় সালাউদ্দিন নামে ১৬ বছর বয়সী একজন পানিতে ডুবে মারা গেছে।

উল্লেখ্য,  সারা রাত তাণ্ডব চালানোর পর ঘূর্ণিঝড় ‘আম্পান’ এখন দুর্বল হয়ে পড়েছে। বৃহস্পতিবার ভোরের দিকে ঘূর্ণিঝড়টি স্থল-নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। তার আগে সুপার সাইক্লোন আম্পান কিছুটা শক্তি হারিয়ে অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড় রূপে বুধবার দুপুরের পর ভারতের পশ্চিমবঙ্গ উপকূলে আঘাত হানে। পরে সন্ধ্যায় আছড়ে পড়ে সুন্দরবনসহ বাংলাদেশের উপকূলে। আম্পানের তাণ্ডবে দেশের বিভিন্ন জেলায় কমপক্ষে ১৯ জনের প্রাণহানি হয়েছে। তাদের মধ্যে বরিশাল বিভাগের ভোলা জেলায় ২ জন, পটুয়াখালীতে ২ জন, পিরোজপুর ৪ জন , বরগুনায় ১ জন এবং সন্দ্বীপে ১ জন, যশোরে ৬ জন , সাতক্ষীরায় ১ জন, ঝিনাইদহে ১ জন ও রাজশাহীতে ১ জনের মৃত্যু হয়েছে।

আমাদের বাণী ডট কম/২১ মে ২০২০/পিএ 

শেয়ার করুনঃ
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •