Shadow

চাঁদপুরে পুলিশ সদস্যসহ নতুন করে আরও ৭ জনের করোনা শনাক্ত

শেয়ার করুনঃ
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

 চাঁদপুর সংবাদদাতা; জেলায়  পুলিশ ও ওষুধ কোম্পানীর প্রতিনিধিসহ আরো ৭ জনের নমুনা টেস্টের রিপোর্ট করোনা পজেটিভ এসেছে। এদের মধ্যে চাঁদপুর সদরে ৪ জন, কচুয়ায় ১ জন, ফরিদগঞ্জে ১ জন ও হাজীগঞ্জে ১ জন। এদের ২ জন পুলিশ সদস্য ও ২ জন ওষুধ কোম্পানীর প্রতিনিধি। এ নিয়ে জেলায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১১৮ জন। এর মধ্যে মৃতের সংখ্যা ১১জন। সুস্থ হয়েছেন ২১ জন।

 আজ শনিবার *২৩ মে ২০২০) দুপুরে চাঁদপুর সিভিল সার্জন অফিস সূত্রে  এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

চাঁদপুর সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সাজেদা বেগম পলিন জানান, শনিবার শনাক্তকৃত চাঁদপুর সদরের ৪ জনের মধ্যে রয়েছেন চাঁদপুর পুলিশ লাইনে কর্মরত ১ জন পুলিশ সদস্য (২২), ব্যাংক কলোনীতে মেসে বসবাসকারী একটি ঔষধ কোম্পানীর প্রতিনিধি ১জন ,পুরাণবাজার ঘোষপাড়া এলাকার এক যুবক (৩১), গণি স্কুলের পেছনের একজন যুবক (৪০)। তিনি জানান, সারা জেলার ১১৮জন করোনা রোগীর মধ্যে ৬৬জন’ই চাঁদপুর সদর উপজেলার। শুধুমাত্র চাঁদপুর পৌর এলাকার রোগী সংখ্যা ৬০জন। যা সারা জেলার মোট রোগীর অর্ধেকেরও বেশি।

সিভিল সার্জন অফিসে সূত্র আরো জানায়, শনিবার জেলার মোট ৪৭জনের নমুনা টেস্টের রিপোর্ট এসেছে। এর মধ্যে ৭জন পজেটিভ। আর বাকী ৪০জনের রিপোর্ট করোনা নেগেটিভ। চাঁদপুরে জেলায় বর্তমানে করোনায় আক্রান্ত ১১৮জনের এরমধ্যে চাঁদপুর সদরে ৬৬, ফরিদগঞ্জে ১৫, মতলব উত্তরে ৬, হাজীগঞ্জে ৭, মতলব দক্ষিণ ৬, কচুয়ায় ৮, শাহরাস্তিতে ৮ ও হাইমচরে ২জন।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনাভাইরাস সংক্রান্ত নিয়মিত হেলথ বুলেটিনের সর্বশেষ (২৩ মে ২০২০) তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় আরও নয় হাজার ৯৭৭টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরীক্ষা করা হয় আগের কিছু মিলিয়ে ১০ হাজার ৮৩৪টি নমুনা। এ নিয়ে দেশে মোট নমুনা পরীক্ষা করা হলো দুই লাখ ৩৪ হাজার ৬৭৫টি। নতুন নমুনা পরীক্ষায় আরও এক হাজার ৮৭৩ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে দেশে মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৩২ হাজার ৭৮ জন। আক্রান্তদের মধ্যে মারা গেছেন আরও ২০ জন। ফলে মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ৪৫২ জনে। ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ২৯৬ জন এবং এ পর্যন্ত সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন ৬ হাজার ৪৮৬ জন। সুস্থতার হার ২০.২২ শতাংশ এবং মৃত্যুর হার ১.৪১ শতাংশ। মারা যাওয়া ব্যক্তিদের সম্পর্কে জানানো হয়, পুরুষ ১৬ জন ও নারী চারজন। এদের মধ্যে হাসপাতালে মারা গেছেন ১৫ জন, বাড়িতে চারজন ও হাসপাতালে আনার পথে একজন। ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে নেয়া হয়েছে ২৮৬ জনকে। আইসোলেশন থেকে ছাড় দেয়া হয়েছে ৪১ জনকে।
আমাদের বাণী ডট কম/২৩ মে ২০২০/ভিপিএ

শেয়ার করুনঃ
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  বালিয়াকান্দিতে 'আলোর ফেরিওয়ালার' মাধ্যমে দ্রুত গ্রাহক সেবা প্রদান