“অন্তর্দহন”

জাফরিন রহমান

ক’দিন আগে বেড়াতে গিয়েছিলাম, পাহাড়ে ।
না, প্রকৃতির টানে নয়। তোমায় ভুলে থাকতে।

পাহাড়ের শরীর বেয়ে বয়ে চলছিল নদী,
দেখলাম- তার যাত্রাপথের প্রতিকূলতা।
কখনো আছড়ে পড়ছে পাথরের খন্ডে,
কখনো উঁচু থেকে লাফিয়ে ঝর্ণাধারা হতে গিয়ে
ভেঙ্গে টুকরো হয়ে ছিটকে যাচ্ছে সে।
আবার হঠাৎ পাহাড়ী পথ ছিঁড়ে নিচ্ছে
তার অর্ধেক দেহ দুই দিকে ।
তবুও তার ছুটে চলা আপন গতিতে।
অবাক হয়ে ভেবেছি- এ কী উন্মাদনা?

ভাবতে ভাবতেই পৌঁছে গেলাম সমুদ্রপাড়ে
নদী তার অর্ঘ্য এনেছে আরাধ্যে মিশে যেতে।
সাগরও সফেন জোয়ারে মিশে যায়,
ফিরে যায় সাজানো অর্ঘ্যের পলিতে।
দূরে আরো দূরে প্রতিশ্রুতির ভাটায়
আমিও বিক্ষত মনে, দেখি তার অন্তর্দহন।

লেখক: বাচিক শিল্পী ও কবি।

[wpdevart_like_box profile_id=”https://www.facebook.com/amaderbanicom-284130558933259/” connections=”show” width=”300″ height=”550″ header=”small” cover_photo=”show” locale=”en_US”]

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।